সেনা সদস্যের হত্যাকারীরা ছাড় পাবেনা: লে. কর্নেল নওরোজ নিকোশিয়ার

fec-image

মাটিরাঙ্গা জোন অধিনায়ক লে. কর্নেল নওরোজ নিকোশিয়ার পিএসসি, জি বলেছেন, আমরা অনেক ধৈর্য্য ধরেছি, পাহাড়ের সাম্প্রদায়িক-সম্প্রীতি ও শান্তি-শৃঙ্খলা রক্ষায় দিনরাত কাজ করে যাচ্ছি। কিন্তু সন্ত্রাসীরা নিজের আধিপত্য বিস্তারে নতুন করে সেনাবাহিনীকে টার্গেট করে মাঠে নেমেছে। তারা পাহাড়ের জাতীয় রাজনৈতিক দলগুলোকে নিশ্চিহ্ন করতে নতুন মিশনে নেমেছে। জনপ্রিয় জাতীয় রাজনৈতিক দলের নেতাকেও হত্যা করেছে। এভাবে চলতে দেয়া হবেনা।

বৃহস্পতিবার (২৯ আগস্ট) বেলা সাড়ে ১১টার দিকে জোন সদরে অনুষ্ঠিত মাটিরাঙ্গা জোনের মাসিক আইনশৃঙ্খলা বিষয়ক মতবিনিময় সভায় সভাপতির বক্তব্যে মাটিরাঙ্গা জোন অধিনায়ক লে. কর্নেল নওরোজ নিকোশিয়ার পিএসসি, জি এসব কথা বলেন।

সেনাবাহিনীর টহলে হামলা ও সেনা সদস্যকে হত্যার নির্দেশদাতা এবং যারা এ হত্যাকান্ড বাস্তবায়ন করেছে তাদেরকে খুঁজে বের করে আইনের আওতায় আনা হবে জানিয়ে মাটিরাঙ্গা জোন অধিনায়ক লে. কর্নেল নওরোজ নিকোশিয়ার পিএসসি, জি বলেন, তাদেরকে কোন প্রকার ছাড় দেয়া হবেনা। এ জন্য সেনাবাহিনীর প্রতিটি সদস্য আন্তরিকভাবে কাজ করছে।

শান্তিচুক্তর পরে শান্তির পাহাড়ে সন্ত্রাসী তৎপরতা মেনে নেয়া হবেনা। ইতিমধ্যে শান্তিচুক্তির অনেক ধারা বাস্তবায়ন হয়েছে, কিছু ধারা বাস্তবায়নাধীন আছে। ভূমি আইন হয়েছে, কমিশন কাজ করছে। শান্তিচুক্তির অংশীজনরা দেশের উন্নয়ন সুবিধার সুফল ভোগ করছে।

মাসিক আইনশৃঙ্খলা বিষয়ক মতবিনিময় সভায় মাটিরাঙ্গা জোনের জোনাল স্টাফ অফিসার মেজর আরেফিন মোহাম্মদ শাকিল, মাটিরাঙ্গা উপজেলা চেয়ারম্যান মো. রফিকুল ইসলাম, মাটিরাঙ্গা উপজেলা নির্বাহী অফিসার বিভীষণ কান্তি দাশ, মাটিরাঙ্গা পৌরসভার মেয়র মো. শামছুল হক, মাটিরাঙ্গা ফরেস্ট রেঞ্জার মো. জহিরুল ইসলাম, গুইমারা থানার অফিসার ইনচার্জ বিদ্যুত বড়ুয়া, মাটিরাঙ্গা সদর ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান হিরনজয় ত্রিপুরা, মাটিরাঙ্গা প্রেস ক্লাবের সভাপতি এমএম জাহাঙ্গীর আলম ও মাটিরাঙ্গা থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) মহিউদ্দন ছাড়াও শিক্ষক-সাংবাদিক, হেডম্যান-কার্বারী, নির্বাচিত জনপ্রতিনিধি ও সুশীল সমাজের প্রতিনিধিগন উপস্থিত ছিলেন।

Print Friendly, PDF & Email
ঘটনাপ্রবাহ: জোন অধিনায়ক, লে. কর্নেল নওরোজ নিকোশিয়ার পিএসসি, সেনাবাহিনী
Facebook Comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

eleven − 7 =

আরও পড়ুন