আরব আমিরাতের বিপক্ষে টস হেরে ব্যাটিং বিপর্যয়ে বাংলাদেশ

fec-image

সংযুক্ত আরব আমিরাতের বিপক্ষে দুই ম্যাচের টি-টোয়েন্টি সিরিজে সুযোগ পেয়েই পরীক্ষা-নীরিক্ষা চালাতে সচেষ্ট হয়েছে টিম ম্যানেজমেন্ট। লিটন দাসকে ওপেনিংয়ে না রেখে দুবাই ইন্টারন্যাশনাল স্টেডিয়ামে শুরুতে ব্যাট করতে পাঠানো হলো মেহেদী হাসান মিরাজ এবং সাব্বির রহমান রুম্মনকে।

লিটন দাসকে ওপেনিং থেকে নামিয়ে আনা হবে চার নম্বরে- এ তথ্য জানিয়েছিলেন প্রধান নির্বাচক মিনহাজুল আবেদিন নান্নু। যদিও পরে এটা চূড়ান্ত কোনো সিদ্ধান্ত নয় বলে জানিয়েছিলেন টিম ডিরেক্টর খালেদ মাহমুদ সুজন।

চার নম্বরে নয়, লিটনকে নামানো হলো তিন নম্বরে। মূলতঃ এশিয়া কাপের শেষ ম্যাচে শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে মেকশিফট ওপেনার হিসেবে মাঠে নেমে দারুণ ব্যাটিং করেছিলেন মিরাজ। সাব্বির রহমান প্রস্তুতিতে নিজের ব্যাটের ক্যারিশমা দেখিয়েছিলেন। সব মিলিয়ে টিম ম্যানেজেমেন্টের চিন্তায় ওপেনিংয়ে বৈচিত্র্য আনা। কিন্তু সেই বৈচিত্র্য আনতে গিয়ে তো এখন মান সম্মানই যায় যায় অবস্থা। আরব আমিরাতের বিপক্ষে টস হেরে ব্যাট করতে নেমে যারপরনাই ব্যাটিং বিপর্যয়ে পড়েছে বাংলাদেশ।

টপ অর্ডাররা তো কিছুই করতে পারলেন না। দুই মেকশিফট ওপেনার মিরাজ, সাব্বির রহমান এবং তিন নম্বরে নামা লিটন দাস পুরোপুরি ব্যর্থতার পরিচয় দিলেন। ইনিংসের দ্বিতীয় ওভারেই কোনো রান না করে আউট হয়ে যান সাব্বির। মিরাজ করেছিলেন ১৪ বলে ১২ রান। এরপর ৮ বলে ১৩ রান করে আউট হয়ে যান লিটন কুমার দাস। ওপেনিং থেকে তিন নম্বরে নেমে আসার প্রভাবই কী তাহলে পড়লো লিটনের ব্যাটিংয়ে?

ব্যাটিং ব্যর্থতার ধারাবাহিকতা দেখালেন ইয়াসির আলী রাব্বিও। ৭বল খেলেছেন, করেছেন কেবল ৪ রান। এরপরই মেইয়াপ্পনের বলে বোল্ড হয়ে যান রাব্বি। অর্থ্যাৎ ৪৭ রানে পড়লো বাংলাদেশের ৪ উইকেট।

Print Friendly, PDF & Email
ঘটনাপ্রবাহ: ক্রিকেট, টি-টোয়েন্টি
Facebook Comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

2 × three =

আরও পড়ুন