ঈদগাঁওয়ে চিকিৎসা দেয়া বন্য হাতিটি বাঁচানো যায়নি

fec-image

কক্সবাজার সদরের ঈদগাঁও’র গহীন বনে অসুস্থ হয়ে পড়া হাতিটিকে চিকিৎসার পরও বাঁচানো যায়নি।

৩ জুন হাতিটি বন এলাকায় মৃত অবস্থায় পড়ে আছে বলে বিভিন্ন মাধ্যমে প্রচার হয়। প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, বিগত দু’দিন পূর্বে ভোমরয়িাঘোনা রেঞ্জের অধীন পার্শ্ববর্তী খুটাখালী ইউনিয়নের পূর্ণগ্রাম বন বিট ও রাজঘাট বনবিট সংলগ্ন বন এলাকায় হাতিটির মৃত্যু হয়।

সংবাদ পেয়ে শনিবার (৬ জুন) ভোমরিয়াঘোনার রেঞ্জ কর্মকর্তা হাফিজুর রহমানের নেতৃত্বে বন বিভাগের লোকজন ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন।পরে প্রাণী সম্পদ চিকিৎসকদের মাধ্যমে মৃত হাতিটির ময়না তদন্ত সম্পন্নের জন্য নমুনা সংগ্রহ করা হয়।

ময়না তদন্ত রিপোর্ট প্রকাশ পেলেই জানা যাবে হাতিটি মৃত্যুর প্রকৃত কারণ। স্থানীয়দের ধারণা, শিকারীর গুলিতে হাতিটির ডান পায়ে মারাত্মক জখম হয় । এ রিপোর্ট লিখা পর্যন্ত মৃত হাতিটিকে সৎকারের প্রক্রিয়া চলছিল।

উল্লেখ্য,বিগত ১৯ মে ভোমরিয়াঘোনা রেঞ্জ অফিসের উদ্যোগে একদল প্রাণিসম্পদ চিকিৎসক হাতিটির সর্বশেষ চিকিৎসা সম্পন্ন করে। চিকিৎসার পর হাতিটি ধীরে ধীরে কিছুটা সুস্থ হয়ে উঠে এবং খাবারের সন্ধানে বেশ কয়েকবার লোকালয়ে হানা দিলে স্থানীয় লোকজন হাতিটিকে বনের দিকে তাড়িয়ে দেয়।এরপরেই হাতি টির মৃত্যু হল।

Print Friendly, PDF & Email
ঘটনাপ্রবাহ: ঈদগাহ, বন্যহাতি
Facebook Comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

14 − three =

আরও পড়ুন