এইচএসসির রেজাল্ট; থানচিতে পাশের হার ২২.৭২%, ২২ জন পরীক্ষা দিয়ে ৫জন পাশ

fec-image

সারা দেশে মতো বান্দরবানে থানচি উপজেলায় একটি মাত্র কলেজের এইচএসসি পরীক্ষার ফল বেরিয়েছে। সেখানে কলা ও ব্যবসায় শিক্ষা বিভাগ থেকে ২২ জন শিক্ষার্থী অংশ নিয়েছিলো। কলা বিভাগের ৩ জন ও ব্যবসা বিভাগের ২জনসহ মোট ৫ জন পাশ করেছে।

ব্যবসায় বিভাগের শতভাগ কৃতকার্য হলেও কলা বিভাগের ১৭ জন অকৃতকার্য হয়েছেন। এ ঘটনায় শিক্ষক অভিবাবক ও শিক্ষার্থীদের মধ্যে ব্যাপক হতাশা বিরাজ করছে । কলেজ পরিচালনা পর্ষদ উপর আস্থা হারাচ্ছে অনেকে ।

জানা যায়, থানচি উপজেলা পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান ক্যহ্লাচিং মারমা পার্বত্য চট্টগ্রাম বিষয়ক মন্ত্রনালয়ের মন্ত্রী বীর বাহাদুর ( উশৈসিং) এমপির সম্মন্বয়ে ২০১৭ সালে থানচি উপজেলা পরিষদের পরিত্যক্ত ভবনকে সংস্কার করে প্রথম বারের মতো ২৫ জন শিক্ষার্থী নিয়ে থানচি উপজেলা কলেজ হিসেবে স্থাপিত হয় ।

২০১৮ সালে সদর ইউনিয়ন পরিষদের পাশে সরকারি ভাবে ৫ একর জায়গা অধিগ্রহণ করে সেখানে একটি তিনকক্ষ বিশিষ্ট টিনসেট ঘর নির্মাণ করে উপজেলা পরিষদ ভবন থেকে স্থানান্তরিত হয় । ঔ বছরে প্রকৃত ভূমির মালিক বনে গিয়ে কলেজের নামে আদালতে মামলা করেন তিনি।

এমনিতে টিনসেট কলেজের গরমে লেখাপড়া করতে পারছেনা সেখানে আদালতে ভূমি মামলা, বিদ্যুৎ, বিশুদ্ধ পানির, আইসিটি বিষয়ের কম্পিউটারসহ প্রয়োজনীয় সাপোর্ট, দক্ষ শিক্ষক ও লেখাপড়া পরিবেশ না থাকায় ২০১৯ সালে রাঙ্গামাটি জেলা রাজস্থলি কলেজের ২২জন শিক্ষার্থী এইচ এসসি উর্ক্তিন্ন পরীক্ষা অংশ নেয় । ১৭ জন অকৃতকার্যরা সকলের ইংরেজি ও আইসিটি বিষয়ের নম্বার কম পেয়েছেন।

যোগাযোগ করা হলে থানচি কলেজের অধ্যক্ষ ধমিনিক ত্রিপুরা বলেন, কলেজ শুরুলগ্ন হতে একাডেমি, প্রশাসন, ক্লাস রুম আইসিটি বিভাগের কম্পিউটারসহ সাপোটিং ও পরিবেশ নানা সমস্যা কারণে এই অবস্থা সৃষ্টি হয়েছে। শিক্ষক ও শিক্ষার্থীদের অক্লান্ত পরিশ্রমে ভালো রেজাল্ট না হলেও অন্তত পক্ষে সবাই অকৃতকার্য হয়নি তাতে আমরা খুশি।

তিনি বলেন, ভবিষ্যতে আপ্রান চেষ্টা করব যেন শিক্ষার্থীরা  পরেবর্তীতে ভালো করতে পারে। ইতিমধ্যে পার্বত্য চট্টগ্রাম উন্নয়ন বোর্ড ,জেলা পরিষদ ও পার্বত্য চট্টগ্রাম বিষয়ক মন্ত্রনালয়ের অর্থায়নের প্রশাসনিক, একাডেমিক ভবনসহ মূল কলেজ ভবন নির্মানাধীণ ও চলমান রয়েছে। অবশ্যই আমরা এগিয়ে যাবো, থানচি কলেজকে এগিয়ে নিবই।

Print Friendly, PDF & Email
Facebook Comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

four + thirteen =

আরও পড়ুন