কক্সবাজারে ডিসি সাহেবের বলী খেলায় কুমিল্লার বাঘা শরীফ চ্যাম্পিয়ন

fec-image

কক্সবাজারের ঐতিহ্যবাহী ডিসি সাহেবের বলী খেলায় টানা দ্বিতীয় বার চ্যাম্পিয়ন হয়েছেন কুমিল্লার হোমনা উপজেলার মণিপুর গ্রামের বাঘা শরীফ বলী।

শনিবার (১১ মে) বিকেলে কক্সবাজার বীরশ্রেষ্ঠ রুহুল আমিন স্টেডিয়ামে অনুষ্ঠিত বলী খেলার ৬৯তম আসরের ফাইনালে মুখোমুখি হয় বাঘা শরীফ বলী ও কক্সবাজারের মহেশখালীর হোয়ানক ছনখোলা পাড়ার শাহেদ হোসেন কালু বলী।

এর আগে ১ নম্বর মেডেলের বাছাইয়ের প্রথম খেলায় মহেশখালীর শফি বলীকে পরাজিত করে ১ নম্বর মেডেলের ফাইনাল খেলার টিকিট নিশ্চিত করেন। ওই মেডেলের দ্বিতীয় বাছাইয়ে কুমিল্লা সদরের রাশেদ মালকে পরাজিত করে ফাইনালের টিকিট নিশ্চিত করেন কালু বলী।

ফাইনালে ৮ মিনিট লাড়াইয়ের পর বাঘা শরীফের কাছে হার মানতে হয় কালুকে ।

এ খেলায় ২ নম্বর মেডেলে চ্যাম্পিয়ন হয়েছেন মহেশখালীর মোহাম্মদ হোসেন বলী। ৩ নম্বর মেডেলে চ্যাম্পিয়ন হয়েছেন মহেশখালীর শফি উল্লাহ বলী।

খেলার ৬৮তম আসরে টানা চল্লিশ মিনিটেও কেউ কাউকে কুপোকাত করতে না পারায় যুগ্ম চ্যাম্পিয়ন ঘোষণা করা হয় কুমিল্লার বাঘা শরীফ ও কক্সবাজারের উখিয়া উপজেলার নুর মোহাম্মদ বলীকে।

বলী খেলার পুরস্কার বিতরণ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন চট্টগ্রাম বিভাগীয় কমিশনার মো. তোফায়েল ইসলাম।

তিনি বলেন, মাদক, সন্ত্রাস ও অপসংস্কৃতির বিরুদ্ধে রুখে দাঁড়াতে গ্রাম্য খেলাধুলার বিকল্প নেই। যারা খেলছেন তাদের যত্ন করা আমাদের উচিত। গ্রামীণ খেলাধুলাকে আরো প্রসার করতে উচ্চ পর্যায়ে সুপারিশ থাকবে।

এসময় কক্সবাজারের জেলা প্রশাসক মুহম্মদ শাহীন ইমরান, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (রাজস্ব) জাহিদ ইকবাল, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) বিভীষণ কান্তি দাশ, বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় কমিটির ধর্মবিষয়ক সম্পাদক অ্যাডভোকেট সিরাজুল মোস্তফা, জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মুজিবুর রহমান, জেলা ক্রীড়া সংস্থার সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট জসিম উদ্দীন ও খেলা উদযাপন পরিষদের সদস্য সচিব হেলাল উদ্দিন কবিরসহ অন্যান্যরা উপস্থিত ছিলেন।

চ্যাম্পিয়ন বাঘা শরীফ বলীকে ২৫ হাজার টাকা প্রাইজমানি ও ট্রফি, রানার আপ কালু বলীকে ১৫ হাজার টাকা ও ট্রফি দেয়া হয়।

২ নম্বর মেডেলে চ্যাম্পিয়ন মোহাম্মদ হোসেন বলীকে ১২ হাজার টাকা প্রাইজ মানি, ট্রফি, রানার আপ লালু বলীকে ৮ হাজার টাকা প্রাইজমানি ও ট্রফি দেয়া হয়।

৩ নম্বর মেডেলে চ্যাম্পিয়ন মোহাম্মদ শফি উল্লাহ বলীকে ১০ হাজার টাকা প্রাইজমানি, ট্রফি এবং রানার আপ আমিন বলীকে ৭ হাজার টাকা প্রাইজমানি ও ট্রফি দেয়া হয়।

Print Friendly, PDF & Email
ঘটনাপ্রবাহ: কক্সবাজার, বলী খেলা
Facebook Comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরও পড়ুন