কুতুবদিয়ায় সেই লবণ চাষি রাজিয়ার সব দায়িত্ব নিলেন ইউএনও

fec-image

কুতুবদিয়ায় স্বামী পরিত্যক্তা নারী লবণ চাষি রাজিয়া বেগমের সব দায়িত্ব নিলেন উপজেলা নির্বাহি অফিসার মো. জিয়াউল হক মীর। স্বামী পরিত্যক্তা রাজিয়া বেগম লেমশীখালী ইউনিয়নের বাসিন্দা। অভাবের সংসারে উপায় না পেয়ে একখণ্ড লবণ জমি লাগিয়ত নিয়ে নিজেই মাঠে শ্রমিকের কাজ করেন।

বিষয়টি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে প্রচার হলে রবিবার(১৭ মে) উপেজলা নির্বাহী অফিসার তাকে ডেকে এনে বিভিন্ন খোঁজ নিয়ে তার অসহায়ত্বকে সহযোগিতার হাত বাড়ান।

এনিয়ে নির্বাহী অফিসার মো. জিয়াউল হক মীর নিজেই তার ফেসবুক আইডিতে একটি পোস্ট দেন।

রাজিয়া বেগমের সকল দায়িত্ব নেয়ার পাশাপাশি তার ৮ম শ্রেণিতে পড়ুয়া মেধাবী ছাত্রী উম্মে হাবিবার লেখা পড়ার দায়িত্বও নেন তিনি। ওই নারীকে একটি ঘর করে দেয়ারও প্রতিশ্রুতি দেন নির্বাহী অফসার। এ ছাড়া তাৎক্ষণিক রাজিয়া বেগমকে জরুরী খাদ্য সামগ্রীও প্রদান করেন।

করোনার এই বিপর্যায়ে উপজেলায় প্রশাসনিক দায়িত্ব চলার পাশাপাশি দরিদ্র নারী লবন চাষি রাজিয়া বেগমের সব দায়িত্ব নেয়ায় দ্বীপের সচেতন মানুষ ভূয়সী প্রশংসা করেন নির্বাহী কর্মকর্তার।

Print Friendly, PDF & Email
ঘটনাপ্রবাহ: ইউএনও, কুতুবদিয়া, লবণ চাষী
Facebook Comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

18 − twelve =

আরও পড়ুন