মানিকছড়িতে করোনায় খেঁটে খাওয়া মানুষের মাঝে খাদ্য সামগ্রী দিচ্ছেন ইউএনও

fec-image

প্রাণঘাতী করোনাভাইরাস ছড়িয়ে পড়ার কারণে বিশ্বজুড়ে দেখা দিয়েছে দুর্যোগ। এর প্রতিরোধে বাংলাদেশেও চলছে লকডাউন। আর এই লকডাউনে মানুষের বাড়ি বাড়ি খাবার পৌঁছে দিচ্ছেন মানিকছড়ি উপজেলা নির্বাহী অফিসার তামান্না মাহমুদ।

বর্তমানে মানুষের মাঝে আতংক বিরাজ করছে। এরই মধ্যে প্রাণঘাতী করোনা ভাইরাসের সংক্রমণ থেকে বাঁচতে বিভিন্ন জনসচেতনতা মূলক প্রচার-প্রচারণা কার্যক্রম পরিচালনা করছেন প্রশাসন ও বিভিন্ন সেচ্ছাসেবী সংঘঠন।

আর এ কার্যক্রমকে সফল করতে সার্বিক সহযোগিতা করে যাচ্ছেন যৌথবাহিনী। তাছাড়ও সরকারি নির্দেশনা মেনে চলতে কঠোর নজরদারী চলছে। সামাজিক যোগাযোগও পরিহার করেছেন সর্বসাধারণ। সচেতন মহলতো ঘর থেকে বেরই হচ্ছে না করোনা সংক্রামণের ঝুঁকি থাকায়।

এমতাবস্থায় সবচাইতে বেশি অসহায় হয়ে পড়েছেন খেঁটে খাওয়া মানুষগুলো! যাদের দিন মজুরের কাজ করেই সংসার চলে! কাজ বন্ধ থাকলে চুলায় আগুন জ্বলে না ও কাজ না করলে খাবারও জোটে না! কাজ নেইতো খাবার নেই! তাদের যখন এমন দুর্বিসহ জীবন চলছিল ঠিক তখন এমন খেঁটে খাওয়া মানুষ গুলোর মাঝে করোনা উপেক্ষা করে ও ঝুঁকি নিয়ে উপজেলার বিভিন্ন প্রত্যন্ত এলাকায় খাদ্য সামগ্রী পৌঁছে দিচ্ছেন মানিকছড়ি উপজেলা নির্বাহী অফিসার তামান্না মাহমুদ।

ছুঁটে চলেছেন পাহাড়ের পাদদেশে। যেখানে পৌঁছেনি খাদ্য সামগ্রী সেখানে গিয়ে তাদের হাতে তুলে দিচ্ছেন খাদ্য সামগ্রী। অসহায়দের মুখে হাসি ফুটাচ্ছেন।

সোমবার(৩১ মার্চ ) উপজেলার বিভিন্ন স্থান ঘুরে দেখা যায়, উপজেলা প্রশাসনের পাশাপাশি মানিকছড়ি থানা অফিসার ইনচার্জ মো. আমির হোসেন’র নেতৃত্বে ও ১নং মানিকছড়ি ইউপি চেয়ারম্যান মো. শফিকুর রহমান ফারুক’র নেতৃত্বে তৃণমূল পর্যায়ে হতদরিদ্র পরিবারের মাঝে খাদ্য সামগ্রী বিতরণ কার্যক্রম প্রতিদিনের ন্যায় চলমান রয়েছে।

এসময় উপস্থিত ছিলেন, সিন্দুকছড়ি জোন কমান্ডর লে. কর্নেল কাওসার জাহান, পিএসসি,জি, উপজেলা চেয়ারম্যান মো. জয়নাল আবেদীন, ইউএনও তামান্না মাহমুদ, ভাইস চেয়ারম্যান মো. তাজুল ইসলাম বাবুল, অফিসার ইনচার্জ আমির হোসেন প্রমুখ।

উপজেলা নির্বাহী অফিসার তামান্না মাহমুদ জানান, বিশ্ব জুড়ে করোনাভাইরাস ছড়িয়ে পড়ায় মানুষ গৃহবন্দী হয়ে পড়েছে। এর ফলে বেশি অসহায় হয়ে পড়েছেন যারা দিন আনে দিন খায়। যাদের এমন দুরাবস্থা তাদের মাঝে খাদ্য সামগ্রী পৌঁছে দেয়া হচ্ছে।

জেলা প্রশাসকের নির্দেশনার আলোকে উপজেলা প্রশাসনের পাশাপাশি জনপ্রতিনিধিদেরও কাজ করতে বলা হয়েছে। তাই মানিকছড়ি উপজেলার প্রত্যন্ত লের বিভিন্ন এলাকার খেটে খাওয়া মানুষ গুলোর খোঁজ খবর নিয়ে তাদের খাদ্য সামগ্রী পৌঁছে দেয়া হচ্ছে। যাতে করে কোন পরিবার অনাহারে রাত্রী যাপন না করে।

Print Friendly, PDF & Email
ঘটনাপ্রবাহ: করোনাভাইরাস, মানিকছড়ি, লকডাউন
Facebook Comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

five × four =

আরও পড়ুন