চিকিৎসাকর্মীদের একটি বিক্ষোভে গুলি চালিয়েছে জান্তা

fec-image

মিয়ানমারে গণতন্ত্রপন্থী চিকিৎসাকর্মীদের একটি বিক্ষোভে গুলি চালিয়েছে জান্তা-নিয়ন্ত্রিত নিরাপত্তা বাহিনী। বৃহস্পতিবার সকালে দেশটির মান্দালয় শহরে এ ঘটনা ঘটেছে বলে জানিয়েছে আন্তর্জাতিক গণমাধ্যমগুলো।

বিবিসি বার্মিজ জানিয়েছে, সামরিক অভ্যুত্থানবিরোধী প্রচারণায় অগ্রভাগে থাকা চিকিৎসাকর্মীরা মান্দালয়ে জড়ো হয়েছিলেন। কিন্তু জান্তা বাহিনী দ্রুতই ঘটনাস্থলে পৌঁছে যায় এবং বিক্ষোভকারীদের ছত্রভঙ্গ করতে গুলি চালায়। এসময় কয়েকজনকে আটক করা হয়েছে।

খিট থিট নামে একটি স্থানীয় সংবাদমাধ্যম জানিয়েছে, চিকিৎসাকর্মীদের বিক্ষোভস্থলের কাছাকাছি একটি মসজিদ প্রাঙ্গণে এক ব্যক্তিকে গুলি করে হত্যা করা হয়েছে।

ওই এলাকার এক বাসিন্দা বিবিসি বার্মিজকে টেলিফোনে জানিয়েছেন, নিরাপত্তা বাহিনী মসজিদ প্রাঙ্গণে পৌঁছেই গুলি শুরু করে। এতে এক ব্যক্তি গুলিবিদ্ধ হন এবং পরে তাকে হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়।

নামপ্রকাশে অনিচ্ছুক ওই বাসিন্দা বলেন, সেখানে কোনও বিক্ষোভ হচ্ছিল না। সেনারা আসল এবং মনে হলো তারা কাউকে খুঁজছে।

মিয়ানমারে গত মঙ্গলবার থেকে শুরু হয়েছে পাঁচ দিনব্যাপী থিঙ্গিয়ান (নববর্ষ) উৎসব। তবে দেশটির গণতন্ত্রকামীরা উৎসবের স্বাভাবিক আয়োজন বাতিল করে জান্তাবিরোধী বিক্ষোভ চালিয়ে যাওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন।

এদিন মান্দালয় ছাড়া অন্য শহরগুলোতেও বিক্ষোভ মিছিল করেছেন শত শত মানুষ।

অ্যাসিসট্যান্স অ্যাসোসিয়েশন ফর পলিটিক্যাল প্রিজনার্সের তথ্যমতে, মিয়ানমারে গত ১ ফেব্রুয়ারি সামরিক অভ্যুত্থানের পর থেকে জান্তাবিরোধী বিক্ষোভে অন্তত ৭১৫ জন নিহত হয়েছেন।

গত মঙ্গলবার জাতিসংঘের মানবাধিকার সংস্থা বলেছে, সামরিক বাহিনীর দমন-পীড়নে মিয়ানমারে সিরিয়ার মতো গৃহযুদ্ধের আশঙ্কা তৈরি হয়েছে।

সূত্র: রয়টার্স

Print Friendly, PDF & Email
Facebook Comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

five × two =

আরও পড়ুন