তিস্তার পানি বিপৎসীমার ৩০ সেন্টিমিটার ওপরে

fec-image

পাহাড়ি ঢল ও টানা বৃষ্টিতে  তিস্তার পানি বিপৎসীমার ৩০ সেন্টিমিটার ওপর দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছে। সোমবার (২০ জুন) দুপুরে পানি উন্নয়ন বোর্ডের ডালিয়া ডিভিশনের নির্বাহী প্রকৌশলী মো. আসফাউদদৌলা এ তথ্য নিশ্চিত করেন।

এ বিষয়ে তিনি বলেন, হাতীবান্ধা উপজেলার দোয়ানী পয়েন্টে বিপদসীমার ৩৯ সেন্টিমিটার ওপর দিয়ে পানি প্রবাহিত হচ্ছে। ভারত থেকে প্রচুর পরিমাণে পানি বাংলাদেশে প্রবেশ করছে। বন্যার আশঙ্কা রয়েছে। তিস্তা পাড়ের মানুষদের নিরাপদে সরিয়ে যেতে বলা হয়েছে।

পানি উন্নয়ন বোর্ড এর আগে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে ব্যারাজের ৪৪টি গেট খুলে দিয়ে পানি নিয়ন্ত্রণের চেষ্টা করছে। ইতোমধ্যে জেলার পাঁচ উপজেলার তিস্তা পাড়ের অন্তত ৩ লাখ মানুষ আতঙ্কে দিন কাটছে।

জেলার পাটগ্রামের দহগ্রাম, হাতীবান্ধা উপজেলার সানিয়াজান, গড্ডিমারী, সিঙ্গীমারী, সিন্দুর্না ইউনিয়নে পাঁচ শতাধিক বাড়িঘরে পানি প্রবেশ করেছেন।

গড্ডিমারী ইউনিয়নের চেয়ারম্যান আবু বক্কর সিদ্দিক শ্যামল জানান, তিস্তার পানি বৃদ্ধির ফলে কয়েকটি গ্রাম প্লাবিত হয়েছে। বন্যাকবলিত এসব পরিবারগুলোকে নিরাপদে সরে যেতে বলা হয়েছে।

Print Friendly, PDF & Email
Facebook Comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

16 − 12 =

আরও পড়ুন