সম্মেলন ঘিরে নেতাকর্মীদের মাঝে ব্যাপক উৎসাহ-উদ্দীপনা

দীর্ঘ ৯ বছর পর চকরিয়া পৌর আ.লীগের সম্মেলন ও কাউন্সিল আজ

fec-image

দীর্ঘ ৯ বছর পর নানা জল্পনা-কল্পনার অবসান ঘটিয়ে অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে বহু প্রতিক্ষিত কক্সবাজারের চকরিয়া পৌরসভা আওয়ামী লীগের ত্রিবার্ষিক সম্মেলন ও কাউন্সিল। বহুদিন পর এ সম্মেলন হওয়ায় তৃণমূূলের দলীয় নেতাকর্মীদের মাঝে সম্মেলনকে ঘিরে ব্যাপক উৎসাহ-উদ্দীপনার সৃষ্টি হয়েছে। এছাড়া সম্মেলনকে ঘিরে পৌর শহরের বিভিন্ন অলিগলিতে প্রার্থীদের নানা রঙের ব্যানার ও ফেস্টুন ছেয়ে গেছে। প্রার্থীরা প্রচারণায় ডিজিটাল প্রযুক্তির ব্যবহার করছেন। সর্বশেষ ২০১৩ সালের ২২ জানুয়ারি চকরিয়া পৌরসভা আওয়ামী লীগের সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়। সবকিছু ঠিক থাকলে রবিবার (৪ সেপ্টেস্বর) চকরিয়া পৌরসভাস্থ পুকপুকুরিয়া ৯নং ওয়ার্ডের এটিএম পার্কে জেলা ও কেন্দ্রীয় নেতাদের উপস্থিতিতে এ সম্মেলন অনুষ্ঠিত হবে বলে দলীয় সূত্রে জানায়।

জানা গেছে, কক্সবাজার জেলা আওয়ামী লীগ ইতোমধ্যে চকরিয়া পৌরসভা আওয়ামী লীগের সম্মেলনের দিনক্ষণ ঘোষণা করেছেন। এরই অংশ হিসেবে চকরিয়া পৌরসভা আওয়ামী লীগের আওতাধীন ৯টি ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের কাউন্সিলর তালিকাও তৈরি করে জেলা কমিটির কাছে প্রেরণ করেছেন। গত ২৪ আগস্ট চকরিয়া পৌরসভা আওয়ামী লীগের বর্ধিত সভায় কক্সবাজার জেলা ও চকরিয়া উপজেলা আওয়ামী লীগের সিনিয়র নেতৃবৃন্দের উপস্থিতিতে চকরিয়া পৌরসভা আওয়ামী লীগের কাউন্সিলর তালিকা চূড়ান্তভাবে অনুমোদন করা হয়।

এদিকে, বহু প্রতিক্ষিত চকরিয়া পৌরসভা আওয়ামী লীগের ত্রি-বার্ষিক সম্মেলনকে ঘিরে দলীয় নেতাকর্মীদের মাঝে এক ধরণের প্রাণচাঞ্চল্য দেখা দিয়েছে। এবারের সম্মেলনে নতুন নেতৃত্ব নিয়ে চলছে নানা ধরণের জল্পনা-কল্পনা। দীর্ঘ ৯ বছর পর সম্মেলন হওয়ায় উৎসবের আমেজ পরিলক্ষিত হচ্ছে তৃণমূলের নেতাকর্মী ও কাউন্সিলরদের মাঝে। ইতোমধ্যে সম্মেলন ঘিরে সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক পদের একাধিক প্রার্থীরা কাউন্সিলরদের কাছ থেকে ভোট প্রার্থনায় মাঠ চষে বেড়াচ্ছেন। দীর্ঘদিন পর সম্মেলন হওয়ায় কাউন্সিলর (ভোটার) ও নেতাকর্মীদের কাছে কদর বেড়েছে।

সরেজমিন ঘুরে দেখা গেছে, চকরিয়া পৌরসভা আওয়ামী লীগের সম্মেলন ঘিরে সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক পদের প্রার্থীরা সকাল থেকে গভীর রাত পর্যন্ত কাউন্সিলর (ভোটার) বাড়ি বাড়ি গিয়ে ভোট চাচ্ছেন প্রার্থীরা। সম্মেলনে প্রার্থীতা ঘোষণা করার পর পরই বিভিন্ন দলীয় নেতাকর্মী ও শুভাকাঙ্খীরা সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকের মাধ্যমে সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক পদের প্রার্থীর পক্ষে কাউন্সিলর, নেতাকর্মী ও শুভানুধ্যায়ীদের কাছে ভোট ও দোয়া কামনা করছেন। অনুষ্ঠিতব্য এবারের সম্মেলনে সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক পদে মোট প্রার্থী রয়েছে ৬ জন। তৎমধ্যে সভাপতি পদে তিনজন ও সাধারণ সম্পাদক পদে তিনজন। ইতোমধ্যে প্রার্থীদের মধ্যে প্রতীক বরাদ্দও দেওয়া হয়েছে।

অনুষ্ঠিতব্য সম্মেলনে সভাপতি পদে ভোটযুদ্ধে যারা রয়েছেন তাঁরা হলেন, বর্তমান কমিটির সভাপতি কক্সবাজার জেলা পরিষদের সাবেক প্যানেল চেয়ারম্যান ও সাবেক ছাত্রনেতা জাহেদুল ইসলাম লিটু (দেওয়াল ঘড়ি), সাবেক ছাত্রনেতা ও তরুন আইনজীবী এডভোকেট ফয়জুল কবির (দোয়াত কলম), প্রবীণ আওয়ামী লীগ নেতা নুরুল আবচার (ছাতা)। এছাড়াও সাধারণ সম্পাদক পদে ভোটের মাঠে লড়াইয়ে আছেন বর্তমান কমিটির সাধারণ সম্পাদক ও সাবেক ছাত্রনেতা আতিক উদ্দিন চৌধুরী (ফুটবল), চকরিয়া পৌরসভার প্যানেল মেয়র মুজিবুল হক মুজিব (হরিণ) ও সাবেক ছাত্রনেতা লায়ন মোহাম্মদ আলমগীর চৌধুরী (গোলাপ ফুল)।

দলীয় সূত্রে জানা গেছে, এবারের সম্মেলনে চকরিয়া পৌরসভার অধীন ৯টি ওয়ার্ড থেকে মোট ১৭১ জন সদস্যকে কাউন্সিলর (ভোটার) করা হয়েছে। প্রতিটি ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের কমিটি থেকে ১৯ জন সদস্য ভোটাধিকার প্রয়োগের সুযোগ পাচ্ছেন। এছাড়াও চকরিয়া পৌরসভা আওয়ামী লীগের কার্যকরি কমিটির সদস্য রয়েছে ৬৯ জন ও কো-অপশন সদস্য ১৯ জন মিলিয়ে মোট কাউন্সিলর হয়েছেন ২৫৯ জন। এসব কাউন্সিলর গোপন ব্যালটের মাধ্যমে ভোট প্রয়োগ করে সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক নির্বাচিত করবেন।

অপরদিকে, চকরিয়া পৌরসভা আওয়ামী লীগের অনুষ্ঠিত সম্মেলনে উদ্বোধক হিসেবে থাকবেন কক্সবাজার ১ (চকরিয়া-পেকুয়া) আসনের সংসদ সদস্য ও চকরিয়া উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি আলহাজ জাফর আলম। চকরিয়া পৌরসভা আওয়ামী লীগের সভাপতি জাহেদুল ইসলাম লিটুর সভাপতিত্বে ও সাধারণ সম্পাদক আতিক উদ্দিন চৌধুরীর সঞ্চালনায় সম্মেলনে প্রধান অতিথি থাকবেন বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় কমিটির ধর্মবিষয়ক সম্পাদক এডভোকেট সিরাজুল মোস্তাফা। এতে প্রধান বক্তার বক্তব্য দেবেন বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ কেন্দ্রীয় কমিটির প্রচার সম্পাদক আমিনুল ইসলাম আমিন।

বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত থাকবেন কক্সবাজার জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি (ভারপ্রাপ্ত) এডভোকেট ফরিদুল ইসলাম চৌধুরী, জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মেয়র মুজিবুর রহমান, সহসভাপতি আজিজুর রহমান, রেজাউল করিম, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক এডভোকেট রনজিত দাশ, সাংগঠনিক সম্পাদক মাহাবুবর রহমান মাবু, বন ও পরিবেশ বিষয়ক সম্পাদক লায়ন কমরউদ্দিন আহমদ, জেলা আওয়ামী লীগের সদস্য এটিএম জিয়াউদ্দিন চৌধুরী জিয়া, আমিনুর রশিদ দুলাল, চকরিয়া উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক গিয়াস উদ্দিন চৌধুরী।

এছাড়াও সম্মেলনে কক্সবাজার জেলা, উপজেলা ও পৌরসভা আওয়ামী লীগের সিনিয়র নেতৃবৃন্দ উপস্থিত থাকবেন। তবে সম্মেলনের দ্বিতীয় অধিবেশনের ভেন্যু নির্ধারণ করা হয় চকরিয়া আবাসিক মহিলা কলেজ মিলনায়তন বলে দলের নির্ভরযোগ্যে সূত্রে জানা গেছে।

Print Friendly, PDF & Email
ঘটনাপ্রবাহ: কাউন্সিল, চকরিয়া, পৌর আওয়ামী লীগ
Facebook Comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

nineteen − seven =

আরও পড়ুন