বান্দরবানে প্রকাশ্যে বিআরটিসি বাস কাউন্টারে হামলা

fec-image

বান্দরবান চট্টগ্রাম সড়কে সংযুক্ত বিআরটিসি বাস চলাচল বন্ধে অবশেষে প্রকাশ্যেই হামলার অভিযোগ উঠেছে। বুধবার (২৯ অক্টোবর) বান্দরবান বাস স্টেশনে বিআরটিসির দুই কর্মী বেধম মারধরের শিকার হন। এই ঘটনার একটি ভিডিওচিত্র সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে প্রচার হলে এলাকার মানুষের মাঝে উত্তেজনা ও ক্ষোভের সৃষ্টি হয়। অনতিবিলম্বে তারা ঘটনায় জড়িতদের উপযুক্ত শাস্তিসহ পূর্বাণী-পূরবী পরিবহণ সিন্ডিকেট ভেঙ্গে দেওয়ার দাবি তুলেছেন।

জানা গেছে, মঙ্গলবার খোঁড়া অজুহাতে পূর্বাণী-পূরবী পরিবহণ মালিক-শ্রমিকরা ধর্মঘটের ডাক দেয়। পরে স্থানীয় রাজনৈতিক নেতা, সাংবাদিক ও প্রশাসনের লোকজনের মধ্যস্থতায় বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়। ওই বৈঠকের শেষ পর্যায়ে পরিবহণ সিন্ডিকেটের গডফাদার হিসেবে পরিচিত অমল দাশ প্রকাশ (টায়ার অমল) বিআরটিসির কাউন্টারে কর্মরতদের পেটানোর নির্দেশ দেন। তার নির্দেশের সাথে সাথে পরিবহণ শ্রমিকরা উত্তেজিত হয়ে বিআরটিসি কাউন্টার থেকে কর্মীদের টেনেহেঁচড়ে রাস্তায় এনে বেধম মারধর এবং কাউন্টারে হামলা করে।

এ প্রসঙ্গে জানতে চাইলে অমল দাশ বলেন, বান্দরবান-চট্টগ্রাম সড়কে বিআরটিসি বাস চললে আমাদের কোন সমস্যা নাই। তবে তারা গাড়িটি যে সময়ে ছাড়ার কথা ছিল তারা নিয়ম মানে নাই তাই আমাদের মধ্যে ভুল বোঝাবুঝি হয়েছে। পরে প্রশাসনের হস্তক্ষেপে সমাধানের পথে যাচ্ছি। আমার প্রতিপক্ষরা আমার বিরুদ্ধে বিভিন্ন অভিযোগ তুলছে। আমি কোনভাবেই সমস্যা সৃষ্টি করতে চাইনি।

অন্যদিকে, বান্দরবানের শৈলশোভা পরিবহন মালিক সমিতির সভাপতি ও সাবেক সদর উপজেলা চেয়ারম্যান আব্দুল কুদ্দুছ বলেন, কিছু কারণে পূরবী-পূর্বানী গাড়ি নিয়ে মানুষের অসন্তোষ আমরাও দেখছি। বিআরটিসি’র গাড়ি ছাড়ার সময় একটু এদিক সেদিক হওয়ার কারণে ভুল বোঝাবুঝি হয়েছে। মালিক ও শ্রমিক সমিতির মধ্যে প্রশাসনের সাথে কথা হয়েছে আশা করি এ ধরনের সমস্যা আর হবে না।

Print Friendly, PDF & Email
Facebook Comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

eleven − six =

আরও পড়ুন