রামগড়ে পেট্রোল ঢেলে আগুনে পুড়িয়ে হত্যা: আদালতে আসামীর স্বীকারোক্তি

fec-image

খাগড়াছড়ির রামগড়ে চাইথোয়াই মারমা(৬০) নামে এক ব্যক্তিকে ইট দিয়ে আঘাতের পর গায়ে পেট্রোল ঢেলে পুড়িয়ে হত্যার ঘটনায় গ্রেফতার হওয়া আসামি মো. শরীফ পাটোয়ারি(২৫) খাগড়াছড়ির সিনিয়ির জুডিসিাল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে হত্যাকাণ্ডের দায় স্বীকার করে ১৬৪ ধারায় জবানবন্দি দিয়েছে।

রামগড় সার্কেলের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মো. রায়হান উদ্দিন কাজেমী এ তথ্য নিশ্চিত করে জানান, বুধবার (৬ সেপ্টেম্বর) দুপুরে আলোচ্য মামলার একমাত্র আসামি মো. শরীফ পাটোয়ারী খাগড়াছড়ির সিনিয়র জুডিসিাল ম্যাজিস্ট্রেট মো. সামিউল আলমের আমলী আদালতে চাইথোয়াই মারমার হত্যার দায় স্বীকার করে ১৬৪ ধারায় জবানবন্দি দিয়েছে। জবানবন্দি সম্পন্ন করার পর আদালত আসামীকে খাগড়াছড়ি জেলা কারাগারে প্রেরণ করেন।

মঙ্গলবার(৫ সেপ্টেম্বর) সন্ধ্যায় চাইথোয়াই মারমা বাজারে যাওয়ার সময় বাসার অদূরে রাস্তায় প্রতিবেশি শরীফ পাটোয়ারী(২৫) আকস্মিকভাবে তার ওপর হামলা চালায়। সে প্রথমে ইট দিয়ে আঘাত করে তাকে গুরুতর আহত করে। পরে আহত চাইথোয়াইর গায়ে পেট্রোল ঢেলে দিয়াশলাই জ্বেলে আগুন ধরিয়ে দেয়।

এসময় আশেপাশের লোকজন এসে তাকে উদ্ধার করে হাসপাতালে পাঠায়। হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় রাত ৭টার দিকে তিনি মারা যান। আগুনে তার শরীরের ৮০ ভাগ অংশ পুড়ে যায়। এ ঘটনার পরই তাৎক্ষণিক পুলিশ শরীফ পাটোয়ারীকে গ্রেফতার করে।

মঙ্গলবার রাতে নিহতের ছেলে অংশেউ মারমা পিতৃহত্যার অভিযোগে শরীফ পাটোয়ারীকে একমাত্র আসামি করে রামগড় থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন। এ ঘটনার আগেরদিন গভীর রাতে শরীফ তাদের ঘরে আগুন দেয়।। এ ব্যাপারে মঙ্গলবার থানায় একটি লিখিত অভিযোগও দেন নিহতের ছেলে অংশেউ মারমা

এদিকে, বুধবার খাগড়াছড়ি জেলা সদর হাসপাতালে চাইথোয়াই মারমার ময়নাতদন্ত সম্পন্ন করা হয়। পরে পুলিশ নিহতের পরিবারের কাছে তার মরদেহ হস্তান্তর করে। নিহত চাইথোয়াই পেশায় একজন কৃষক ছিলেন।

 হত্যা র দায় স্বীকারকারী শরীফ পাটোয়ারীর বাবা আবু আহমেদ পাটোয়ারী দাবি করেন, তার ছেলে গত ২ বছর যাবৎ মানসিকরোগে ভুগছে। চট্টগ্রামসহ বিভিন্ন স্থানে তার মানসিক চিকিৎসা করানো হচ্ছিল।

Print Friendly, PDF & Email
Facebook Comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

thirteen + sixteen =

আরও পড়ুন