সোমালিয়ার হোটেলে হামলায় সাংবাদিকসহ ৭ জন নিহত

fec-image

আফ্রিকার উত্তর-পূর্বাঞ্চলীয় দেশ সোমালিয়ার দক্ষিণাঞ্চলীয় শহর কিসমায়োর একটি হোটেলে আত্মঘাতী গাড়িবোমা হামলা ও বন্দুকধারীদের গুলিতে সাংবাদিকসহ অন্তত সাতজন নিহত হয়েছেন।

শুক্রবার (১২ জুলাই) এ হামলার ঘটনা ঘটে বলে জানিয়েছে আন্তর্জাতিক সংবাদমাধ্যম।

সংবাদমাধ্যমের খবরে বলা হয়, দেশটির দক্ষিণাঞ্চলীয় প্রদেশ লোয়ার জুবারের বন্দর নগরী কিসমায়োর আসাসে হোটেলে আসন্ন আঞ্চলিক নির্বাচন নিয়ে বৈঠক করছিল স্থানীয় রাজনৈতিক নেতারা। এসময়ই হোটেলটিতে এ হামলা চালানো হয়। এতে অন্তত সাতজন নিহত হয়। এদের মধ্যে সোমালিয়ার টেলিভিশনের কানাডিয়ান সাংবাদিক হোদান নালায়েহ এবং তার স্বামীও ছিলেন।

নালায়েহ ও তার স্বামীর মৃত্যুর খবর নিশ্চিত করেছে স্থানীয় গণমাধ্যম।

কর্তৃপক্ষ জানায়, বিস্ফোরকসহ একটি গাড়ি হঠাৎই হোটেল এলাকায় প্রবেশ করে বিস্ফোরণ ঘটায়। এরপর গুলি চালানো শুরু করে বন্দুকধারীরা। এতেই এ হতাহতের ঘটনা ঘটে।

ইতোমধ্যে এ হামলার দায় স্বীকার করেছে আল কায়েদা সমর্থিত সশস্ত্র জঙ্গিগোষ্ঠী আল-শাবাব।

স্থানীয় নিরাপত্তাকর্মী আবদি ধুহুল জানান, হামলায় স্থানীয় এক সাবেক প্রশাসক ও এক আইনপ্রণেতা নিহত হয়েছেন। এছাড়া হোটেলের ভেতরে এখনও কোনো জঙ্গি সদস্য রয়েছে কিনা, তা নিশ্চিত হওয়া যায়নি।

২০১২ সালেই কিসমায়ো শহর ছেড়ে যায় জঙ্গিগোষ্ঠী আল-শাবাব। এরপর থেকেই শান্তিতে বসবাস করছিল এ শহরের বাসিন্দারা। তবে হঠাৎই এ হামলা চালায় জঙ্গিরা।

দেশটিতে প্রায়ই হওয়া জঙ্গি হামলা নিয়ন্ত্রণ করতে কাজ করছে আফ্রিকান ইউনিয়নের শান্তিরক্ষীরা। সে সঙ্গে নিরাপত্তা নিশ্চিতে কাজ করছে যুক্তরাষ্ট্রের প্রশিক্ষণপ্রাপ্ত সোমালিয়ান সৈন্যরাও। তবে এরপরও দেশটির রাজধানী মোগাদিসুসহ দক্ষিণ ও মধ্যাঞ্চলীয় শহরগুলোতে প্রায়ই হামলা চালিয়ে থাকে আল-শাবাবের সদস্যরা।

Print Friendly, PDF & Email
Facebook Comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

five + ten =

আরও পড়ুন