স্কুলে প্রসাদ খাওয়ানোর ঘটনায় বান্দরবানে জুমার নামাজে নিন্দা

fec-image

চট্টগ্রামের বিভিন্ন স্কুলে মুসলিম শিশু কিশোরদের মাঝে হিন্দুত্ববাদের স্লোগান ‘হরে কৃষ্ণ হরে রাম’ মন্ত্র পাঠ করিয়ে প্রসাদ খাওয়ানোর ঘটনায় তীব্র নিন্দা জানিয়ে বান্দরবানে জুমার নামাজে বিশেষ মোনাজাত করা হয়েছে।

শুক্রবার (১৯জুলাই) বাদ জুমা বান্দরবান কেন্দ্রীয় জামে মসজিদে মুসলামদের নিয়ে ষড়যন্ত্র ও বাংলাদেশের মানুষের হেফাজত চেয়ে মহান আল্লাহর দরবারে বিশেষ মোনাজাত করা হয়। পাশাপাশি সম্প্রতি বান্দরবানে বয়ে যাওয়া ভয়াবহ বন্যায় ক্ষতিগ্রস্ত মানুষের জন্যও দোয়া করেন খতিব।

এসময় কেন্দ্রীয় মসজিদের খতিব মাওলানা আলাউদ্দিন ইমামী সবধরনের উষ্কানী থেকে বিরত থাকার জন্য মুসল্লিদের পরামর্শ জানিয়ে বলেন- বিশ্বব্যাপী মুসলমানরা বর্বরোচিত হামলার শিকার হচ্ছে। কিন্তু ভিন্ন ধর্মীদের উপর মুসলমানরা হামলা করেছে এমন নজির নেই। ইসলাম শান্তির ধর্ম। তাই বান্দরবানে শান্তি সম্প্রীতি বজায় রাখার জন্য উপস্থিত মুসল্লিদের প্রতি আহ্বান জানান তিনি। পাশাপাশি মুসলামান শিশু-কিশোরদের প্রসাদ খাওয়ার ঘটনার বিষয়টি গুরুত্বসহকারে তদন্ত করে ব্যবস্থা নেওয়ার জন্য মুসল্লিদের পক্ষ থেকে তিনি সরকারের প্রতি উদাত্ত আহ্বান জানান।

এদিকে চট্টগ্রামে স্কুলে প্রসাদ খাওয়ার ওই ঘটনায় শুক্রবার (১৯জুলাই) বান্দরবানে জুমার নামাজে বিভিন্ন মসজিদে পুলিশের পক্ষ থেকে নিরাপত্তা জোরদার করা হয়।

Print Friendly, PDF & Email
Facebook Comment

One Reply to “স্কুলে প্রসাদ খাওয়ানোর ঘটনায় বান্দরবানে জুমার নামাজে নিন্দা”

  1. এটা কিছুই না। জাস্ট বাংলাদেশ কে উস্কানি দিচ্ছে। শুধু শুধু রাষ্ট্রের ভাবমূর্তি ক্ষুণ্ন করার উপায় মাত্র। দেশে ছোট ছোট ছেলে মেয়েদেকে শিক্ষা প্রতিষ্ঠান হিন্দু বাণী পাড়ানো হচ্ছে আর অন্য দিকে ট্রাম্প কাকুর কাছে ঠাড়া পড়ার মতো আচমকা অভিযোগ শুনিয়ে দেওয়া হচ্ছে। সব তাদের চাল।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

six − 3 =

আরও পড়ুন