নানিয়ারচরে দুর্গম পাহাড়ে ইউপিডিএফ’র আস্তানায় অভিযান চালিয়ে অস্ত্রসহ বিপুল সংখ্যক গোলাবারুদ উদ্ধার

fec-image

রাঙ্গামাটির নানিয়ারচর জোনের আওতাধীন বন্দুকভাঙ্গা ইউনিয়নের অন্তর্গত বামে ত্রিপুরাপাড়া এলাকায় যৌথ বাহিনী কর্তৃক বিশেষ অভিযান পরিচালনার মাধ্যমে অবৈধ অস্ত্র,  গােলাবারুদ এবং বিভিন্ন সরঞ্জামাদি উদ্ধার করা হয়েছে।

শুক্রবার (২৬ নভেম্বর)  ভাের ৪টায় নানিয়ারচর জোন এবং স্থানীয় পুলিশের সহায়তায় যৌথ বাহিনী কর্তৃক এ বিশেষ অভিযান পরিচালনা করা হয়।

গােয়েন্দা তথ্য হতে জানা যায়, নানিয়ারচর জোনের আওতাধীন বন্দুকভাঙ্গা ইউনিয়নের অন্তর্গত বামে ত্রিপুরাপাড়া নামক এলাকায় ইউপিডিএফ (মূল) দলের প্লাটুন কমান্ডার এবং পরিচালক প্লাবন চাকমা সহ ১৬-১৭ জন সশস্ত্র সন্ত্রাসী দল চাঁদা সংগ্রহ এবং সন্ত্রাসী কার্যকলাপের জন্য ক্যাম্প স্থাপন করে অবস্থান করছে। উক্ত তথ্যের ভিত্তিতে শুক্রবার (২৬ নভেম্বর)  আনুমানিক ভাের ৪টায় নানিয়ারচর জোন এবং স্থানীয় পুলিশের সহায়তায় যৌথ বাহিনী কর্তৃক একটি বিশেষ অভিযান পরিচালনা করা হয়।

বিশেষ অভিযানে ইউপিডিএফ (মূল) এর আস্তানা থেকে একটি ৭.৬২ মিঃমিঃ একে-৪৭ (চায়না) ম্যাগাজিনসহ ১৮ রাউন্ড এ্যামুনিশন, একটি ৭.৬৫ মিঃমিঃ অটোমেটিক পিস্তল (চায়না) ম্যাগাজিনসহ ২ রাউন্ড এ্যামুনিশন, একটি দেশি এলজি (২ রাউন্ড কার্তুজসহ), একটি ওয়াকিটকি সেট, ৩ সেট ইউপিডিএফ (মূল) এর ব্যবহৃত ইউনিফর্ম, একটি কালাে ব্যাগ, একটি রাইজিং স্টার নামক ম্যাগাজিন, একটি ল্যান্ড ফোন (সীম দ্বারা পরিচালিত), দুইটি মােবাইল ফোন, তিনটি চাঁদা আদায়ের রেজিস্টার, দুইটি চাঁদা আদায়ের ডায়েরী, চারটি জাতীয় পরিচয় পত্র, নগদ ২,৪৯,১১৮.০০ (দুই লক্ষ ঊনপঞ্চাশ হাজার একশত আঠারাে টাকা মাত্র) টাকা এবং আটত্রিশটি দে্শি-বিদেশী পুরােনাে মুদ্রাসহ অন্যান্য অনেক গুরুত্বপূর্ণ নথিপত্র উদ্ধার করা হয়।

পরবর্তীতে উদ্ধারকৃত অস্ত্র, গােলাবারুদ এবং অন্যান্য দ্রব্য সামগ্রী নানিয়ারচর থানায় হস্তান্তর করা হয়। এ সংক্রান্ত বিষয়ে মামলা প্রক্রিয়াধীন আছে। নানিয়ারচর জোন তথা বাংলাদেশ সেনাবাহিনী পার্বত্য চট্টগ্রামের আঞ্চলিক সন্ত্রাসী দলগুলাের সন্ত্রাসী কার্যক্রমের বিরুদ্ধে এ ধরনের অভিযান অব্যাহত রাখবে বলেও জানান।

Print Friendly, PDF & Email
Facebook Comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

five × one =

আরও পড়ুন