কক্সবাজারে প্রথম সপ্তাহে সিনোফার্মের টিকা পেলো ৭৬২ জন

fec-image

দ্বিতীয় দফায় করোনা ভ্যাকসিনের কার্যক্রম শুরু হয়েছে। ১ জুলাই থেকে প্রথম ডোজ হিসেবে চিনের রাষ্ট্রীয় প্রতিষ্ঠান ‘সিনোফার্মের ভ্যাক্সিন’ দেয়া হচ্ছে।

কক্সবাজার জেলা সদর হাসপাতালে সকাল ৯টা থেকে বিকাল ৩টা পর্যন্ত করোনার ভ্যাকসিন দেয়া হয়। কেবল নিবন্ধিত ব্যক্তিরাই ভ্যাকসিন পাবে।

সরকার নির্ধারিত সুরক্ষা ওয়েব লিংকে গিয়েই নিবন্ধন করতে হবে। তারপর এসএমএস-এর মাধ্যমে জানিয়ে দেওয়া হবে টিকাদানের তারিখ।

কক্সবাজার জেলা সদর হাসপাতালের আবাসিক মেডিকেল অফিসার (আরএমও, প্রশাসন) ডা. এসএম নাওশেদ রিয়াদ জানান, গত ৭ জুলাই পর্যন্ত নতুন, পুরাতনসহ কক্সবাজার জেলা সদর হাসপাতাল টিকাকেন্দ্রের অধীনে ২৫,৩২৯জন নিবন্ধন করেছে।

তাদের মধ্য থেকে ২০,১৭৩ জন প্রথম ডোজ এবং ১৬,৯৫৮ জন দ্বিতীয় ডোজ পেয়েছে। সেখানে সিনোফার্মের টিকা নিয়েছে ৭৬২ জন। প্রথম ডোজ প্রয়োগের ঠিক মাস পরে দেওয়া হবে দ্বিতীয় ডোজ।

এদিকে, করোনার টিকা পেতে প্রথম দিকে বয়সসীমা ৪০ বছর করা হলেও তা শিথিল করা হয়েছে। গত ৭ জুলাই থেকে ৩৫ বছরের উর্ধ বয়সীদেরও নিবন্ধন নিচ্ছে।

বিশেষজ্ঞরা বলছেন, কোভিড-১৯ থেকে পুরোপুরি সুরক্ষা পেতে এবং শরীরের ভেতর এই ভাইরাস প্রতিরোধী রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা তৈরি, সেটিকে আটকে দেয়া ও ধ্বংস করার মতো টি সেল তৈরির করার জন্য টিকার দুইটি ডোজ গ্রহণ করা গুরুত্বপূর্ণ।

দুইটি আলাদা প্রতিষ্ঠানের টিকার সংমিশ্রণে মানুষের শরীরে কোভিডের বিরুদ্ধে রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা তৈরিতে সবচেয়ে বেশি কার্যকারিতা পাওয়া যাচ্ছে, বলেও গবেষকরা বলছেন।

Print Friendly, PDF & Email
ঘটনাপ্রবাহ: কক্সবাজার, টিকা, সিনোফার্ম
Facebook Comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

thirteen − five =

আরও পড়ুন