কুতুবদিয়ায় সুকর্ন ও অনন্ত বালার বদ্ধভূমি স্মৃতিস্তম্ভ নির্মাণ হচ্ছে

fec-image

কুতুবদিয়ায় প্রথম নির্মিত হচ্ছে বদ্ধভূমি স্মৃতিস্তম্ভ। দীর্ঘদিন বদ্ধভূমিগুলো সনাক্ত আর সংরক্ষণের অভাবে পরিত্যক্ত ছিল। স্থানীয়দের মতে মুক্তিযুদ্ধকালীন সময়ে ৩টি বদ্ধভূমি ছিল। এর মধ্যে উপজেলা সদর বড়ঘোপ ইউনিয়নে স্টীমারঘাট এলাকায় দু‘টি ও কৈয়ারবিল ইউনিয়নে একটি। শেষেরটি সাগরে বিলীন হওয়ায় সেটি সনাক্ত বা সংরক্ষণ করা সম্ভব হয়নি।

বড়ঘোপ স্টীমার ঘাটে কৈবর্ত্য পাড়ার সুকর্ন অনন্ত দাসকে পাক সেনারা সৈকতে পানিতে দাঁড় করিয়ে গুলি করে এবং একই পাড়ার অনন্ত বালা দাসকে ঘরে পুড়িয়ে মারা হয় বলে উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ইউপি চেয়ারম্যান বীরমুক্তিযোদ্ধা নুরুচছাফা জানান।

স্থানীয় এলজিইডি সূত্রে জানা যায়, তাদের বদ্ধভূমিকে কেন্দ্র করেই মুক্তিযুদ্ধ স্মৃতি ইতিহাস ঐতিহ্য সংরক্ষণ প্রকল্পের অধীনে দ্বীপ কুতুবদিয়ায় ৩৪ লক্ষ টাকা ব্যয়ে প্রথম ও একমাত্র বদ্ধভূমি স্মৃতিস্তম্ভ নির্মাণ করা হচ্ছে।

ঠিকাদারির কাজ করেছেন আসাদ এন্টারপ্রাইজ নামক একটি ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠান। অবশ্য স্থানীয় একাধিক ব্যক্তি সাব-কন্ট্রাক্ট হিসেবে কাজ করে যাচ্ছেন। গত বছরে নির্মাণ কাজ শেষ করার কথা থাকলেও পূণ: ষ্টীমেট, আর্থিক বিভিন্ন কারণে তা নির্ধারিত সম্ভব হয়নি।

স্থানীয় এলজিইডি‘র উপ-সহকারি প্রকৌশলী জামাল খান বলেন, বদ্ধভূমি স্মৃতিস্তম্ভ নির্মাণ কাজ ইতিমধ্যে ৯০ ভাগ শেষ হয়েছে। বিভিন্ন প্রতিকূলতার দরুণ পূণ: ষ্টীমেট করায় কিছুটা বিলম্ব হয়েছে। এখন শুধু মূল স্তম্ভে মার্বেল স্টোন,ফ্লোর ও গেইটে সিরামিক টাইল্স লাগানো বাকি রয়েছে। অবশিষ্ট ১০ ভাগ কাজ আগামী এক মাসের মধ্যেই শেষ হবে বলে জানান তিনি।

Print Friendly, PDF & Email
ঘটনাপ্রবাহ: কুতুবদিয়া, বদ্ধভূমি, স্মৃতিস্তম্ভ
Facebook Comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

1 + five =

আরও পড়ুন