জামিনে এসে মামলার বাদীকে হত্যার হুমকি, থানায় জিডি

fec-image

কক্সবাজারের চকরিয়ায় সদ্য সমাপ্ত হওয়া কৈয়ারবিল ইউপি নির্বাচন পরবর্তী সহিংসতা ও কৈয়ারবিল এলাকার মোহাম্মদ কালু নামের জৈনক এক ব্যক্তিকে দিনদুপুরে প্রকাশ্যে ছুরিকাঘাত এবং মারধরের অভিযোগে আদালতে সিআর ১৪২১/২১ মামলা দায়ের করা হয়। ওই মামলার এজাহারভুক্ত ২নম্বর আসামী মহসিন উদ্দিন মিটু (৩৩) সম্প্রতি আদালত থেকে জামিনে এসে মামলার বাদীকে মেরে ফেলার হুমকি দিয়েছেন বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। এ নিয়ে মামলার বাদী মো. কালু ১৫ মে ২০২২ইং তারিখ দুইজনকে অভিযুক্ত করে চকরিয়া থানায় সাধারণ ডায়েরি (জিডি) করেছেন। হুমকির বিষয়টি তদন্ত করা হচ্ছে বলে জানিয়েছে পুলিশ।

জানাগেছে, গত ২৮ নভেম্বর ২০২১ ইং তারিখ কৈয়ারবিল ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে চশমা প্রতীকের চেয়ারম্যান পদপ্রার্থীর সমর্থনে সিএনজি ভাড়ার নিমিত্তে চেয়ারম্যান প্রার্থীর কাছ থেকে আশি হাজার টাকা নিয়ে বর্ণিত ঘটনাস্থলে অবস্থান করে কৈয়ারবিল মিয়াজি পাড়া এলাকার মো. কালু। এসময় পূর্বথেকে ঘটনাস্থলে থাকা ইসলাম নগর এলাকার মহসিন উদ্দিন মিটুসহ ১০-১২ দুর্বৃত্ত বেআইনী জনতা গঠন করে মোহাম্মদ কালুর ওপর আক্রমণ করে। এসময় তার হাতে থাকা ছোরার আঘাতে কালুর ডান চোখের ভ্রুর উপরে গুরুতর জখম হয়।

এ ঘটনায় মোহাম্মদ কালু বাদী হয়ে চকরিয়া সিনিয়র জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে সিআর ১৪২১/২১ মামলা দায়ের করেন। দায়েরকৃত ওই মামলায় ১২ জনকে আসামি করা হয়। চলতি মাসের গত ১৩ মে পুলিশ মামলার এজাহারভুক্ত ২ নম্বর আসামি মহসিন উদ্দিন মিটু (৩৩) ইসলাম নগর এলাকা থেকে গ্রেপ্তার করে। গত ১৪ মে তিনি আদালত থেকে জামিনে আসেন।

মামলার বাদী মোহাম্মদ কালু জানান, গত ১৪ মে বিকেলে মামলার আসামি মিটু জামিনে এসে আমার বাড়ির সামনে দাঁড়িয়ে অশ্লীল গালিগালাজ, ভীতিপ্রদর্শন ও মামলা তুলে নিতে আমার পরিবারের সদস্য, নিকট আত্নীয় ও আমাকে হত্যার হুমকি দেন। এছাড়াও মামলার বেশ কয়েকজন সাক্ষীকে নানা ধরণের হুমকি দেন মামলার আসামি মিটু ও তার সহপাঠী আসামিরা। হুমকির ঘটনার বিষয়ে ১৫ মে ২০২২ইং চকরিয়া থানায় সাধারণ ডায়েরি (জিডি) করা হয় আসামিদের বিরুদ্ধে।

তিনি আরও বলেন, মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা তদন্তে ও সাক্ষী প্রমাণে ঘটনার সত্যতা পেয়েছেন মর্মে আদালতে প্রতিবেদন দাখিল করেন। তার প্রেক্ষিতে বিজ্ঞ আদালত আসামিদের বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ানা জারি করেন। আসামির বিরুদ্ধে আদালত গ্রেফতারি পরোয়ানার প্রেক্ষিতে অভিযুক্ত আসামি মহসিন উদ্দিন মিটুকে ইসলামনগর থেকে ১৩মে গ্রেপ্তার করেছে থানা পুলিশ। গত ১৪ মে সকালে গ্রেফতারকৃত আসামিকে আদালতে সোপর্দ করা হয়। পরে আদালত মহসিন উদ্দিন মিটুকে জামিন প্রদান করেন। কিন্তু আসামি জামিনে এসে এলাকায় গাড়ি বহর নিয়ে প্রকাশ্যে আনন্দ উল্লাস করে সন্ত্রাসী নিয়ে মহড়াসহ অশ্লীল ভাষায় গালিগালাজ করে নানা ধরণের হুমকি প্রদর্শন করেন। এমনকি মামলা প্রত্যাহার করে না নিলে বাদী ও তার পরিবার-পরিজন এবং নিকটতম আত্মীয় এবং সাক্ষীদের মারবে, কাটবে অপহরণ করবে, গােপন স্থানে নিয়ে খুন করবে, বসতঘর পুড়িয়ে ভেঙ্গে দেবে, ঘরের মালামাল লুট করবে, জানমালের ব্যাপক ক্ষতি সাধন করবে মর্মে হুমকি দেয়। ফলে আদালতের বিশেষ নজরে আনার জন্য ভুক্তভোগী মামলার বাদী মোহাম্মদ কালু বাদী হয়ে ১৫ মে থানায় এসে আসামির বিরুদ্ধে জিডি করেন। বাদী মোহাম্মদ কালু বিজ্ঞ আদালতের কাছে জামিন বাতিলসহ আইনপ্রয়োগকারী সংস্থার কাছে সহায়তা কামনা করেন।

Print Friendly, PDF & Email
ঘটনাপ্রবাহ: অভিযোগ, জামিন, বাদী
Facebook Comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

5 × 1 =

আরও পড়ুন