জেডিসি পরীক্ষার প্রথম দিনে মহেশখালীর একটি কেন্দ্রে অনুপস্থিত ২৯ শিক্ষার্থী!

fec-image

এবারে অনুষ্ঠিত জেডিসি পরীক্ষার প্রথম দিনে মহেশখালীর একটি কেন্দ্রে ২৯ শিক্ষার্থী অনুপস্থিত রয়েছে। এ বিষয় নিয়ে সচতেন মহলের মাঝে মিশ্র প্রতিক্রিয়া সৃষ্টি হয়েছে। মহেশখালী উপজেলার কালারমারছড়া মঈনুল ইসলাম আলিম মাদ্রাসা কেন্দ্র নং ২ মহেশখালীতে এ ঘটনা ঘটেছে।

উক্ত কেন্দ্রের অধীনে ১১টি প্রতিষ্ঠানের মোট ৬২৬জন শিক্ষার্থীর মধ্যে ২৯ জন শিক্ষার্থী প্রথম দিনে পরীক্ষায় অনুপস্থিত ছিলেন। কেনো তারা পরীক্ষায় অনুপস্থিত সেটা শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের কাছে কোন ধরনের তথ্য নেই।

জেডিসি মহেশখালী কেন্দ্র ২- এর কেন্দ্র সচিব মাওলানা মুবিনুল হক জানান, আমরা ইতিমধ্যে প্রতিটি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের প্রধান বরাবর লিখিতভাবে কারণ দর্শানো হয়েছে। তিনি আরো জানান, মহেশখালী একটি দূর্ঘম এলাকা তাই অনেক ছাত্রী অসুস্থ্য এবং বাল্যবিবাহ জনিত কারণও থাকতে পারে। বিষয়টি আমরা খতিয়ে দেখছি।

এদিকে শনিবার পরীক্ষার শুরুর পর বিষয়টি নিয়ে কথা হয় উপজেলা একাডেমিক সুপারভাইজার ফজলুল করিমের সাথে। তিনি জানান, একটি কেন্দ্রে এত শিক্ষার্থী কেন অনুপস্থিত সেটা জানতে চেয়ে স্ব-স্ব প্রতিষ্ঠানের প্রধানকে নোটিশ দেয়া হয়েছে। বিষয়টি ইতোমধ্যে উর্ধতন কর্তৃপক্ষকে অবহিত করা হয়েছে।

উপজেলা নির্বাহী অফিসার জামিরুল ইসলাম জানান, বিষয়টি আমি শুনেছি, কি কারণে পরীক্ষা কেন্দ্রে অনুপস্থিত তা খতিয়ে দেখা হবে।

এদিকে স্থানীয় সচেতন মহলের অভিমত, মহেশখালীর শাপলাপুর, কালারমারছড়া, মাতারবাড়ির ও ধলঘাটার ৬ষ্ট, ৭ম শ্রেণির মেয়েদের বিয়ে হয়ে যায় গোপনে ফলে তারা মাদ্রাসায় পরীক্ষার ফরম ফিলাপ করালেও বিয়ে সংক্রান্ত কারণে আর পরীক্ষায় অংশ নিতে পারেনা। এটি অসচেতন অভিভাবকদের কারণে বাল্যবিবাহের কুফল।

Print Friendly, PDF & Email
ঘটনাপ্রবাহ: উপজেলা নির্বাহী অফিসার, জেডিসি পরীক্ষা
Facebook Comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

one × 2 =

আরও পড়ুন