দীঘিনালায় সন্ত্রাসীদের গুলিতে এক ইউপিডিএফ কর্মী নিহত; আহত ১

U.P.D

পার্বত্যনিউজ রিপোর্ট:
খাগড়াছড়ির দীঘিনালা উপজেলার সীমান্তবর্তী বাবুছড়া রাস্তার মাথায় স্বশস্ত্র সন্ত্রাসীদের গুলিতে চুক্তিবিরোধী ইউনাইটেড পিপলস ডেমোক্রেটিক ফ্রন্ট-ইউপিডিএফ সমর্র্থিত গনতান্ত্রিক যুব ফোরামের কর্মী সুদৃষ্টি চাকমা (৩০) নামে এক কর্মী নিহত ও হৃদ্ধি চাকমা (২৫) নামে অপর এক কর্মী আহত হয়েছে। আজ রবিবার সকাল  ৮ টার দিকে দীঘিনালার বাবুছড়া রাস্তার মাথা বাজারে ঘটনাটি ঘটেছে।  

নিহত সুদৃষ্টি চাকমা রাস্তারমাথা বাজার সংলগ্ন মগ্যা কার্বারী পাড়ার মৃত নিতাই চাকমার ছেলে। আহত হৃদি চাকমা একই এলাকার মৃত শরৎ চাকমার ছেলে।

পুলিশ ও প্রত্যক্ষদর্শী সুত্র জানায়, সকালে বাড়ির পাশে বাজারে নাস্তা করতে গেলে ৪/৫ জন মুখোশধারী স্বশস্ত্র সন্ত্রাসীরা এসে সুদৃষ্টি চাকমাকে খুবু কাছ থেকে গুলি করলে ঘটনাস্থলেই তার মৃত্যু হয়। তখন হৃদি চাকমা পালানোর চেষ্টা করলে তাকে লক্ষ্য করে গুলি করলে তার পায়ে গুলি লাগে। আহত হৃদিকে দীঘিনালা উপজেলা হাসপাতালে প্রাথমিক চিকিৎসার পর আশঙ্কাজনক অবস্থায় খাগড়াছড়ি জেলা সদর হাসপাতালে স্থানান্তর করা করা হয়েছে।

নিহত ও আহতরা ইউপিডিএফের সদস্য দাবী করে ঘটনার জন্য সন্তু লারমা সমর্থিত চুক্তির পক্ষের শক্তি পার্বত্য চট্টগ্রাম জনসংহতি সমিতি-জেএসএসকে দায়ী করেছেন ইউপিডিএফ‘র দীঘিনালা উপজেলা ইউনিট প্রধান কিশোর চাকমা। অপরদিকে জেএসএস‘র (সন্তু গ্রুপ) কেন্দ্রীয় কমিটির সহ তথ্য ও প্রচার সম্পাদক সজিব চাকমা ইউপিডিএফ‘র অভিযোগ উদ্দেশ্য প্রনোদিত ও ভিত্তিহিন দাবী করে ঘটনার সাথে জেএসএস এর কোন সম্পৃক্ততা নাই বলে দাবী করেছেন।

এদিকে ইউনাইটেড পিপল্স ডেমোক্রেটিক ফ্রন্ট-ইউপিডিএফ‘র খাগড়াছড়ি জেলা ইউনিটের সমন্বয়ক প্রদীপন খীসা এক বিবৃতিতে এ ঘটনার তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়েছেন। বিবৃতিতে তিনি বলেন, সকালের দিকে সুদৃষ্টি চাকমা ও হৃদ্ধি চাকমা সাংগঠনিক কাজে বাবুছড়ার রাস্তামাথায় বের হন। তারা একটি দোকানে বসে লোকজনের সাথে কথাবার্তা বলছিলেন। এ সময় আগে থেকে ওঁৎ পেতে থাকা সন্তু গ্রুপের সশস্ত্র সন্ত্রাসীরা দোকানে ঢুকে খুব কাছ থেকে তাদেরকে লক্ষ্য করে প্রকাশ্যে ব্রাশ ফায়ার করে। এতে ঘটনাস্থলেই সুদৃষ্টি চাকমা নিহত হন এবং হৃদ্ধি চাকমা দুই পায়ে গুলিবিদ্ধ হন।

এ ঘটনাকে ন্যাক্কারজনক ও কাপুরুষোচিত উল্লেখ করে বলেন, পার্বত্য চট্টগ্রামের জুম্ম জনগণের ঐক্য আকাক্সক্ষাকে নস্যাৎ করার জন্য সন্তু লারমা সরকারের বিশেষ এজেন্ডা বাস্তবায়নে তার সশস্ত্র সন্ত্রাসী বাহিনীকে লেলিয়ে দিয়ে এ হত্যাকান্ড সংঘটিত করেছে। এর মধ্যে দিয়ে সন্তু লারমা পার্বত্য চট্টগ্রামে আবার খুনের রাজত্ব কায়েম করতে শুরু করেছে। সন্তু লারমার প্রতি আহ্বান জানিয়ে তিনি বলেন, পার্বত্য চট্টগ্রামের জনগণের ঐক্য আকাক্সক্ষার প্রতি সম্মান দেখিয়ে অচিরেই এ ধরনের ঘৃণ্য খুন-খারাবির রাজনীতি বন্ধ করুন, নইলে জনগণ এর উপযুক্ত জবাব দেবে। তিনি সুদৃষ্টি চাকমার হত্যাকারী সন্তু গ্রুপের সশস্ত্র সন্ত্রাসীদের গ্রেফতার করে আইনের আওতায় নিয়ে আসার দাবি জানান।

এদিকে দীঘিনালা থানার অফিসার ইনচার্জ মো: শাহাদাত হোসেন টিটো ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে এই ‘হত্যাকাণ্ড’ দীর্ঘদিনের লড়াইয়ের ফসল বলে জানান তিনি।

এদিকে আমাদের খাগড়াছড়ি প্রতিনিধি জানিয়েছেন, ঘটনার প্র্রতিবাদে ইউপিডিএফ দিঘীনালায় প্রতিবাদ মিছিল ও বিক্ষোভ সমাবেশ করেছে।

Print Friendly, PDF & Email
Facebook Comment

2 Replies to “দীঘিনালায় সন্ত্রাসীদের গুলিতে এক ইউপিডিএফ কর্মী নিহত; আহত ১”

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

three × two =

আরও পড়ুন