দীর্ঘদিন পর কাপ্তাই ওয়াগগা ইউনিয়ন ডিজিটাল সেন্টারে ইন্টারনেট সেবা

fec-image

কাপ্তাই ওয়াগগা ইউনিয়নের ৬ হাজারেরও বেশি লোকজন আধুনিক ডিজিটাল সেন্টারের সুবিধা পাওয়ায় মহাখুশি। এডিপি ও এলজিএসপির ১১লাখ ৫৩ হাজার টাকা ব্যায়ে ওয়াগগা ইউনিয়ন ডিজিটাল সেন্টার স্থাপন করা হলেও এলাকার লোকজন কোন সুবিধা না পাওয়ার ফলে ইউনিয়ন তথ্য সেবাসহ বিভিন্ন কার্যক্রম থেকে দীর্ঘদিন লোকজন বঞ্চিত ছিল। বর্তমান ওয়াগগা ইউনিয়নটি কাপ্তাই উপজেলা হতে প্রায় ৫/৭ কিঃমিঃ দূরত্ব হওয়ার ফলে দীর্ঘদিন যাবৎ কোন মোবাইল নেটওর্য়াক বা ইন্টারনেটের সংযোগ না থাকার ফলে এলাকার লোকজন ইউনিয়ন ডিজিটাল তথ্য সেবা থেকে বঞ্চিত ছিল।

ওয়াগগা ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান চিরনজীত তংচগ্যা বলেন, কাপ্তাই উপজেলা নির্বাহী অফিসার আশ্রাফ আহমেদ রাসেলের সার্বিক সহযোগতিায় এবং নিজের উদ্যোগে প্রায় ৫ কিঃ মিঃ দূরত্বে ওয়াগগা অসহায় ও কৃষকদের কথা বিবেচনা করে আমাদের ইন্টারনেট সংযোগ দিয়েছে।

আমরা এখন আধুনিক ডিজিটাল সেন্টারের মাধ্যমে অনলাইন সেবা, জন্ম ও মৃত্যু নিবন্ধন অনলাইন সেবা, বিশ্ববিদ্যালয় ভর্তি, কম্পিউটার প্রশিক্ষণ কোর্স, পাবলিক পরীক্ষা ফলাফল, ই- মেইল, ইন্টার নেট, ভিডিও কলিং, ছবি তোলা, প্রিন্ট, স্বাস্থ্য, কৃষিসহ বিভিন্ন সুবিধা পাচ্ছি। এদিকে ওয়াগগা ইউনিয়ন ডিজিটাল সেন্টার উদ্যোক্তা সুমন তনচংঙ্গ্যা বলেন, আমরা অনেকদিন যাবৎ এলাকার লোকজনকে ইন্টারনেট সংযোগ না থাকার ফলে সুবিধা দিতে পারতাম না। বর্তমানে নির্বাহী অফিসারের আন্তরিকতা ও সার্বিক সহযোগিতার ফলে এখন উক্ত ইউনিয়নের ৬ হাজারের বেশি জনসংখ্যা ডিজিটাল সেন্টারের সুবিধা পাচ্ছে।

এদিকে কাপ্তাই উপজেলা নির্বাহী অফিসার আশ্রাফ আহমেদ রাসেল জানান, র্দীঘদিন যাবৎ উক্ত এলাকার কৃষক, মজুর ও অসহায় লোকজন ইন্টারনেট সংযোগ না থাকায় প্রতিনিয়ত বিভিন্ন সেবা হতে বঞ্চিত ছিল। বর্তমানে তাদের সার্বিক অবস্থা বিবেচনা করে প্রায় ৫ /৭ কিঃ মিঃ দূরত্বে  উক্ত ডিজিটাল সেন্টারে ইন্টারনেট সংযোগ দেওয়ায় এখন এলাকার লোকজন সম্পূর্ণ ডিজিটাল সেন্টারের আওতায়। এখন তারা সকল সেবাই দিচ্ছে। আগামী কিছুদিনের মধ্যে রাঙ্গামাটি জেলা প্রশাসক উক্ত ডিজিটাল সেন্টারটি উদ্বোধন করবেন বলে জানান।

Print Friendly, PDF & Email
ঘটনাপ্রবাহ: উপজেলা নির্বাহী অফিসার, ডিজিটাল সেন্টার
Facebook Comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

17 + 16 =

আরও পড়ুন