নাইক্ষ্যংছড়িতে লকডাউন শিথিলের পর পরিস্থিতি মনিটরিং করছেন ম্যাজিস্ট্রেট

fec-image

সীমান্ত উপজেলা নাইক্ষ্যংছড়িতে লকডাউন শিথিলের পর পরিস্থিতি মনিটরিং করছেন বান্দরবান জেলা প্রশাসনের সহকারী কমিশনার ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট নাজমুল হাসান।

সোমবার (১১ মে) সকাল ১০টা থেকে দুপুর ২ টা পর্যন্ত উপজেলা সদরে মনিটরিং করেছেন। এ সময় একটি মুদি দোকানী ও তিনটি মোটরবাইককে জরিমানা করেন তিনি।

মনিটরিং দলে সংযুক্ত থাকা সূত্র আরো বলেন, উপজেলা প্রশাসনের তত্বাবধানে এ অভিযান চলছে। সরকার দেশে ১০ এপ্রিল থেকে সীমিত আকারে দোকান-পাট ও মার্কেট খোলার ঘোষণার পর উপজেলা ও ইউনিয়ন পর্যায়ে লোকজন বাড়ি থেকে বেরিয়ে আসবেন যেনতেনভাবে।

দোকান-পাঠ খুলতে নির্দেশনা মানছে কিনা ইত্যকার সংশয়ে বান্দরবান জেলা প্রশাসন ১০ এপ্রিল থেকে মাঠ পর্যায়ে মনিটরিং এর জন্যে অত্র উপজেলায় পাঠানো হয় ম্যাজিস্ট্রেটের নের্তৃত্বে এ টিমকে। তারা সোমবার সকালে অভিযান চালান উপজেলা সদরের ঘিলাতলী, বিছামারা ও হাইস্কুলপাড়া এলাকায়।

এ সময় ঘিলাতলী গ্রামের মুদি দোকানে মেয়াদোর্ত্তীণ পণ্য রাখার দায়ে নুরুল আবছারকে ৫ শত টাকা জনিমানা করা হয়। হেলমেট ও মাস্ক না পরে মোটরবাইক চালনার দায়ে সড়ক পরিবহন আইনে ড্রাইভার জয়নাল আবেদীন, জাহাঙ্গির আলম ও ইমদাদ মিয়াকে ২ শত টাকা করে জরিমানা আদায় করা হয়।

পাশাপাশি তাদেরকে সর্তকও করা হয়। এভাবে মনিটরিং টিম উপজেলা সদরের র্মামা পাড়া ও খোলা মাঠে স্থাপিত কাচাঁ বাজার পরিদর্শন করেন ।

সে সময় তারা কাঁচা মাছ ব্যবসায়ী ও তরিতরকারী ব্যবসায়ীসহ সকলকে সর্তক করেন । বিশেষ করে করোনাভাইরাস মহামারী আকারে সংক্রমণের আশংকায় লকডাউন ও বাজার শিথিলের পর সরকার নির্দেশিত বিধিগুলো অবহিত করেন সকলকে।

তবে কেউ না মানলে ভবিষ্যৎ এ কঠোর অবস্থানের কথাও জানান দলটি।

টিমের প্রধান ম্যাজিস্ট্রেট নাজমুল হাসান বলেন, সরকার চাচ্ছে জন কল্যাণ। জনগণের স্বার্থে আইন প্রণয়ন ও প্রয়োগ। যারা এ আইন মানবে না তাদের বিরুদ্ধে সরকারের নির্দেশিত বিধি মতে ব্যবস্থা নেয়া হবে।

তিনি আরো বলেন, ১০এপ্রিল রোববার থেকে অভিযান শুরু হয়েছে। বাইশারীতে এ অভিযান চলে রোববার। সোমবারে চলে সদরে। মঙ্গলবার থেকে উপজেলার যেকোন হাট-বাজার অথবা মার্কেটে অভিযান চলবে। এভাবে চলতে থাকবে। যেন করোনা সংক্রমণ না ছাড়ায়।

Print Friendly, PDF & Email
ঘটনাপ্রবাহ: করোনভাইরাস, নাইক্ষ্যংছড়ি, লকডাউন
Facebook Comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

2 × five =

আরও পড়ুন