পানছড়ি শান্তিপুর অরণ্য কুটিরে ১৩ তম কঠিন চীবর দান অনুষ্ঠান

fec-image

পানছড়ি শান্তিপুর অরণ্য কুটিরে বিপুল উৎসাহ উদ্দীপনা ও ধর্মীয় ভাব গাম্ভীর্যের মধ্য দিয়ে শেষ হয়েছে কঠিন চীবর দান অনুষ্ঠান। বৃহস্পতিবার (১৭ অক্টোবর) থেকে শুরু হওয়া দু’দিন ব্যাপী অনুষ্ঠিতব্য কঠিন চীবর দানটি ছিল ১৩ তম। সকাল থেকে শুরু হওয়া এ ধর্মীয় অনুষ্ঠানে বাংলাদেশসহ সারা বিশ্বের শান্তি, সমৃদ্ধি ও মঙ্গল কামনা করা হয়। এতে মাত্র চব্বিশ ঘন্টার মধ্যে তুলো থেকে সুতা এবং ওই সুতো থেকে কোমর তাঁতের মাধ্যমে রাতভর চীবর বানানো হয়।

অনুষ্ঠানে চীবর দানের পাশাপাশি বুদ্ধ মূর্তি দান, সংঘ দান, অষ্ট পরিস্কার দান ও কল্পতরুসহ নানাবিধ দান সামগ্রী দান করা হয় । অনুষ্ঠানে প্রায় পাঁচ শতাধিক ভিক্ষু একযোগে প্রার্থনা করে। শুক্রবার ( ১৮ অক্টোবর) সমাপনী দিনে কুটিরের অধ্যক্ষ শাসন রক্ষিত মহাস্থবিরের নেতৃত্বে পূণ্যার্থীদের মাঝে ধর্ম দেশনা প্রদান করা হয়। এ সময় কুটির প্রাঙ্গনে হাজার হাজার প্রদীপ জ্বালানো হয়। বুদ্ধের অহিংস নীতিতে অনুসরণ করলে সমাজে সুখ ও শান্তি আসবে বলে জানান পানছড়ি ডিগ্রী কলেজের অধ্যক্ষ ও অরণ্য কুটির পরিচালনা কমিটির সভাপতি সমীর দত্ত চাকমা।

এ সময় আরো উপস্থিত ছিলেন তিন পার্বত্য জেলার সংরক্ষিত আসনের মহিলা এমপি বাসন্তী চাকমা, সাবেক উপমন্ত্রী মুনি স্বপন দেওয়ান, পার্বত্য জেলা পরিষদ সদস্য সতীশ চন্দ্র চাকমা, জুয়েল চাকমা, প্যানেল চেয়ারম্যান চন্দ্র দেব চাকমা, মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান মনিতা ত্রিপুরা প্রমুখ।

Print Friendly, PDF & Email
Facebook Comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

2 × 4 =

আরও পড়ুন