নিখোঁজ মিনহাজ হত্যাকাণ্ড

বন্ধুকে গলা কেটে হত্যা, এক মাস পর লাশ উদ্ধার: গ্রেফতার ১

fec-image

কক্সবাজারের চকরিয়ায় নিখোঁজের এক মাস পর মিনহাজ উদ্দিন (১৫) নামে এক কিশোরকে কুপিয়ে হত্যার ঘটনায় জড়িত অভিযোগে আশরাফ উদ্দিন ছোটন (১৯) নামে এক যুবককে গ্রেফতার করেছে চকরিয়া থানা পুলিশ।

চকরিয়া থানার ওসি’র নেতৃত্বে একদল পুলিশ উপজেলার বমুবিলছড়ি ইউনিয়নের ছোট বমু এলাকায় অভিযান চালিয়ে বুধবার (২৮ সেপ্টেম্বর) বিকালে তাকে আটক করা হয়। ছোটন ওই এলাকার আবু তাহেরের ছেলে।

বৃহস্পতিবার (২৯ সেপ্টেম্বর) বিকালে মিনহাজ হত্যাকাণ্ডের ঘটনায় তার বাবা মোহাম্মদ ফোরকান বাদী হয়ে একজনকে আসামী করে হত্যা মামলা দায়ের করেন।

থানা পুলিশ সূত্রে জানা যায়, বিগত এক বছর ধরে বমুবিলছড়ি এলাকার জনৈক মনছুর আলমের মৎস্য খামারে মাসিক বেতন ভিত্তিক কর্মচারী ছিল মিনহাজ উদ্দিন ও আশরাফ উদ্দিন ছোটন। তারা দুইজনের মধ্যে ভালো বন্ধুত্ব হয়। তার সুবাধে মিনহাজ উদ্দিনের বাড়িতে যাতায়াত ছিল বন্ধু ছোটনের।

চকরিয়া থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) চন্দন কুমার চক্রবর্তী বলেন, হত্যাকাণ্ডে জড়িত অভিযোগে গ্রেফতার আশরাফ উদ্দিন ছোটন প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে জানায়, মিনহাজ উদ্দিনের সাথে মোবাইল ফোন চুরি সংক্রান্ত বিষয় নিয়ে তর্কাতর্কির এক পর্যায়ে ক্ষিপ্ত হয়ে গলায় ধারালো দা দিয়ে তাকে কোপ দিলে সে ঘটনাস্থলে মারা যায়। পরে মিনহাজের লাশ গুম করতে মৎস্য খামারের পাশ্ববর্তী করলা ক্ষেতের মাটি খুঁড়ে লাশ পুঁতে রাখা হয়।

ওসি আরো জানান, তার দেয়া স্বীকারোক্তি মোতাবেক হত্যাকাণ্ডে ব্যবহৃত দা ও কোদাল পার্শ্ববর্তী পুকুর হতে ও মোবাইল তার হেফাজত থেকে উদ্ধার করা হয়। বৃহস্পতিবার বিকালে গ্রেফতারকৃত ছোটনকে আদালতে উপস্থাপন করা হলে সে ম্যাজিস্ট্রেটের কাছে হত্যাকাণ্ডের কথা স্বীকার করে ১৬৪ ধারায় জবানবন্দি দিয়েছেন।

উল্লেখ্য, গত মঙ্গলবার বিকালে বমুবিলছড়ি ইউনিয়নের ছোট বমু রিজার্ভ পাহাড়ি এলাকা থেকে মিনহাজ উদ্দিন নামে এক কিশোরের খণ্ডিত মরদেহ উদ্ধার করা হয়। তিনি এক মাস আগে নিখোঁজ হন।

Print Friendly, PDF & Email
ঘটনাপ্রবাহ: চকরিয়া, লাশ উদ্ধার
Facebook Comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

3 + nine =

আরও পড়ুন