রাঙামাটিতে বন্দুক যুদ্ধ : পাহাড়ি দুই গ্রুপের সংঘর্ষে একজন নিহত

bonduk juddho_0_0

স্টাফ রিপোর্টার :

আধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে পাহাড়ি দুই গ্রুপের মধ্যে রাঙামাটিতে বন্দুক যুদ্ধ হওয়ার খবর পাওয়া গেছে। জেলার নানিয়ারচর উপজেলায় এ বন্দুক যুদ্ধের ঘটনা ঘটেছে। মঙ্গলবার ভোর ৫ টা থেকে সকাল ৮ টা পর্যন্ত টানা তিন ঘন্টা জেলার নানিয়ারচর উপজেলায় ঘিলাছড়ির পূর্ণবাসন এলাকায় বিবদমান দুই পাহাড়ি গ্রুপের মধ্যে কয়েকশ রাউন্ড গুলি বিনিময়ের ঘটনা ঘটে। পাহাড়ি আঞ্চলিক দলগুলোর মধ্যে এঘটনা ঘটেছে কি না তা জানা যায়নি। তবে সংর্ঘষকারী সবাই উপজাতি বলে জানা গেছে।

মঙ্গলবার ভোর ৫টার দিকে শুরু হওয়া জেলার নানিয়ারচর উপজেলায় ঘিলাছড়ির পূর্ণবাসন এলাকায় পাহাড়ি দুই গ্রুপের মধ্যে বন্দুক যুদ্ধে অমর কুমার চাকমা (৩৫) নামে এক পাহাড়ি যুবক নিহত হয়েছে বলে দাবী করেছে স্থানীয় গ্রামবাসী । তবে নিহতের লাশ খুঁজে পায়নি পুলিশ। নিরাপত্তা বাহিনীর সদস্যরা ঘটনাস্থলে যাওয়ার আগেই সন্ত্রাসীরা নিহতের লাশ সরিয়ে ফেলেছে বলে আশংকা করছে গ্রামবাসী ।

উপজাতীয় বিবদমান গ্রুপগুলোর মধ্যে রাঙ্গামাটিতে বন্দুক যুদ্ধ হওয়ার ব্যাপারে রাঙামাটি জেলার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার হাবিবুর রহমান জানান, গুলি বিনিময়ের খবর পেয়ে সেনাবাহিনী ও পুলিশ ঘটনাস্থলে গেলে সন্ত্রাসীরা গভীর জঙ্গলে পালিয়ে যায়। এ সময় ঘটনাস্থল থেকে ৬৮ রাউন্ড গুলির খোসা উদ্ধার করা হয়েছে। সন্ত্রাসীদের ধরতে পুনর্বাসন ও স্বনির্ভর এবং আশ পাশের এলাকায় তল্লাশি অভিযান অব্যাহত রয়েছে।

Print Friendly, PDF & Email
Facebook Comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

3 × 4 =

আরও পড়ুন