রাজস্থলীতে নির্বাহী অফিসারের নিরাপত্তার জন্য আনসার মোতায়েন

fec-image

উপজেলা পর্যায়ে সরকারের সমন্বয়কারী হিসেবে কাজ করেন উপজেলা নির্বাহী অফিসার ( ইউ এন ও) এবং উপজেলা নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট হিসেবে পরিচালনা করেন ভ্রাম্যমান আদালত, উপজেলা আইন শৃঙ্গলা রক্ষাকারী কমিটির সভাপতিও তারা। এতে প্রায় ঝুঁকি নিয়ে তাদের ভাল কাজ করতে হয়। এর ফলে স্থানীয় পর্যায়ে স্বার্থন্বেষীমহল তাদের ওপর অসন্তুষ্ট হয়। এ নিয়ে বিভিন্ন সময় অপ্রীতিকর ঘটনাও ঘটে।

বিশেষ করে পার্বত্য অঞ্চলের ইউ এন ও দের মাঠ পর্যায়ে কাজ করার সময় ঝুঁকির মধ্যে পড়তে হয়। সম্প্রতি দিনাজপুর ঘোরাঘাট উপজেলায় নির্বাহী অফিসার ওয়াহিদা খানমের ওপর হামলার পর সরকার দেশের সব নির্বাহী কর্মকর্তার নিরাপত্তায় আনসার দেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে।

বিশেষ সুত্রে জানা যায়, সারা দেশের উপজেলাতেও আনসার মোতায়েন শুরু হয়েছে। আপাতত চার জন করে সশস্ত্র আনসার নিয়োগ দেওয়া হয়। অপর দিকে নির্বাহী অফিসাররা এখনো উদ্বিগ্ন কেন না দিনাজপুরের ঘোড়াঘাটের ইউ এন ও ওয়াহিদা খানমের ওপর বর্বর হামলার পর অনেক ইউ এন ও নিজেদের নিরাপত্তা নিয়ে উদ্বেগ প্রকাশ করেন।

রাজস্থলী উপজেলা নির্বাহী অফিসার শেখ ছাদেক ঘোড়াঘাটের প্রসঙ্গ টেনে সাংবাদিকদের বলেন, আগে তো কোন দিন এমন হয়নি, গত কয়েক দিন আগে দিনাজপুর ঘোড়াঘাট উপজেলায় নির্বাহী অফিসারকে অতর্কিতভাবে হামলা করে সন্ত্রাসীরা।

ফলে বিষয়টি মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর দৃষ্টিগোচর হলে তিনি তাৎক্ষনিক ঘোষণা দেন। ঘোষণার পর পর রাজস্থলী উপজেলায় নিরাপত্তার জন্য ৪ জন আনসার প্রেরণ করা হয়েছে। ফলে সার্বক্ষনিক তারা নির্বাহী অফিসারের বাসভবন ও অফিসের নিরাপত্তা নিশ্চিত করবেন।

Print Friendly, PDF & Email
ঘটনাপ্রবাহ: উপজেলা নির্বাহী অফিসার, প্রধানমন্ত্রী
Facebook Comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

17 − 15 =

আরও পড়ুন