রামুতে বাল্য বিবাহের হাত থেকে মাদ্রাসার ছাত্রী উদ্ধার : ৪ জনকে জরিমানা

71020_03-10-13_biye-copy

রামু প্রতিনিধি:       

কক্সবাজারের রামু বাইপাস একটি সিটি পার্ক কমিউনিটি সেন্টারে বৃহস্পতিবার রাতে জোরপূর্বক নবমশ্রেণীর ছাত্রীকে বাল্য বিবাহের হাত থেকে উদ্ধার করেছেন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো. মাসুদ হোসেন। এসময় বাল্য বিবাহ আইন লংঘন করে বাল্য বিয়ে পড়ানোর দায়ে বর, কনের বাবা ও কাজি’র সহকারিসহ ৪জনকে ভ্রাম্যমাণ আদালতের মাধ্যমে জরিমানা করা হয়েছে। 

 

আদালত সূত্রে জানা গেছে, উত্তর ফতেখাঁরকুল গ্রামের জাকের হোসেনের মেয়ে ও কলঘর বালিকা মাদ্রাসার নবম শ্রেণীর ছাত্রীর অমতে জোরপূর্বক পাশ্ববর্তী উখিয়ারঘোনা লামার পাড়া এলাকার আলহাজ্ব মোহাম্মদ হাসানের ছেলে তৈয়ব উল্লাহর সঙ্গে বিয়ে দেওয়ার চেষ্টা করছিল তার পরিবার। খবর পেয়ে ত্যক্ষানিক অভিযান চালিয়ে বাল্য বিবাহটি বন্ধ করে দেয় ভ্রাম্যমাণ আদালত। এদিকে রামুর ইউ এনও মোঃ মাসুদ হোসেন বাল্য বিবাহ বন্ধ করে জরিমানা দেওয়ার বিষয় নিশ্চিত করেছেন।   

কনে জানান, তার ইচ্ছার বিরুদ্ধে অভিভাবকগণ তাকে বিয়েতে বাধ্য করেছে।

এদিকে রামু উপজেলায় বাল্য বিবাহের সংখ্যা আশঙ্কাজনকহারে বাড়ছে। যে কারনে সামাজিকভাবে নানাবিধ সমস্যা ক্রমেই বেড়ে চলেছে। সরকার ও বিভিন্ন এনজিও সংগঠনের জনসচেতনামুলক কার্যক্রম ব্যাপকভাবে প্রচালিত হলেও কোনক্রমেই বাল্য বিবাহ রোধ করা যাচ্ছেনা । যার প্রভাবে বেড়েছে নারী নির্যাতন, বিবাহ বিচ্ছেদ, বহুবিবাহ ,পরকিয়া, আত্মহত্যা, পুষ্টিহীন ও প্রতিবন্ধী শিশু প্রস্বাব, গর্ভজনিত ও অপুষ্টি জনিত মৃত্যু, দৈনন্দিন এ সব সমস্যায় একেবারে সমাজকে বিষিয়ে তুলছে। বর্তমান সরকার বাল্যবিবাহ দমনে কঠোর ভুমিকা রাখলেও কোন ক্রমেই বাল্য বিবাহ হ্রাস রোধ করা সম্ভাব হচ্ছে না।       

Print Friendly, PDF & Email
ঘটনাপ্রবাহ: পার্বত্যনিউজ, বাল্য বিবাহ, বাল্য বিয়ে
Facebook Comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

two × three =

আরও পড়ুন