সৈকতের ৩ পয়েন্টে স্ট্রেচার দিবে ট্যুরিস্ট পুলিশ

সংকট, সীমাবদ্ধতার মাঝেও পর্যটকদের নিরাপত্তা দিচ্ছে লাইফগার্ডের সদস্যরা

fec-image

আধুনিক রেসকিউ আইটেমের অভাব। প্রচুর জনবল সংকট। সরঞ্জাম রাখার কোন জায়গা নেই। এসব নানা সীমাবদ্ধতার মাঝেও পর্যটকদের নিরাপত্তায় দায়িত্ব পালন করে যাচ্ছে সি সেইফ লাইফগার্ডের সদস্যরা।

মঙ্গলবার (২৩ আগস্ট) সন্ধ্যায় ট্যুরিস্ট পুলিশের সঙ্গে মতবিনিময়কালে সি সেইফ লাইফগার্ডের সদস্যরা এসব সমস্যা ও সংকটের কথা তুলে ধরেন।

চ্যালেঞ্জিং পেশায় কাজ করছে লাইফগার্ডের সদস্যরা। সে জন্য অনুষ্ঠানের প্রারম্ভে তাদের ধন্যবাদ জ্ঞাপন করেন ট্যুরিস্ট পুলিশ কক্সবাজার রিজিয়নের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মো. রেজাউল করিম।

সভাপতির বক্তব্যে তিনি বলেন, ‘নিজের জীবনে ঝুঁজি আছে জেনেও পর্যটকদের নিরাপত্তায় কাজ করছে লাইফগার্ডের সদস্যরা। এটি মহৎ একটি কাজ। যার প্রতিদান হয়না। লাইফ গার্ডের সদস্যদের কাজ খুবই ঝুঁকিপূর্ণ। তাদের ইন্সুরেন্স করার ব্যাপারে উদ্যোগ নেয়া হবে। জনবল ও বেতন বৃদ্ধির ব্যাপারে অফিসিয়াল পত্রের মাধ্যমে যথাযথ কর্তৃপক্ষকে অনুরোধ করবে ট্যুরিস্ট পুলিশ।তবে, ট্যুরিস্ট পুলিশের সাথে সমন্বয় রাখতে হবে। সবাই মিলে একসাথে কাজ করলে যেকোন পরিস্থিতি সহজেই মোকাবেলা যাবে। আরো বাড়বে কাজের গতি।’

মো. রেজাউল করিম বলেন, ‘ডুবন্ত পর্যটকদের উদ্ধার করে সহজেই যাতে এম্বুলেন্সে উঠানো যায়, সেজন্য আপাতত ৩ পয়েন্টে তিনটি স্ট্রেচার দিবে ট্যুরিস্ট পুলিশ। আধুনিক রেসকিউ আইটেম সংগ্রহ করে লাইফ গার্ডের সদস্যদের সরবরাহ করা হবে।’

পর্যটকদের সমুদ্রের গভীরে যাওয়া থেকে নিবৃত রাখা, পানিতে ফুটবল খেলা হতে পর্যটকদের বিরত রাখার কাজে ট্যুরিস্ট পুলিশকে সহযোগিতা করার অনুরোধ জানান অতিরিক্ত পুলিশ সুপার।

পর্যটকদের যেকোন অভিযোগ বা হয়রানির ঘটনা দেখলে ট্যুরিস্ট পুলিশকে জানানোর জন্য অনুরোধ করেন ট্যুরিস্ট পুলিশের এই মুখপত্র।

Print Friendly, PDF & Email
ঘটনাপ্রবাহ: নিরাপত্তা, লাইফগার্ড
Facebook Comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

ten + two =

আরও পড়ুন