চকরিয়ায় ৮৭,২৬৫ শিশুকে খাওয়ানো হয়েছে ভিটামিন এ প্লাস ক্যাপসুল

fec-image

চকরিয়া উপজেলার ১৮টি ইউনিয়ন ও একটি পৌরসভা এলাকায় ৬ থেকে ১১ মাস বয়সের ৯ হাজার ৩৮০ জন শিশু এবং ১২ থেকে ৫৯ মাস বয়সের ৭৭ হাজার ৮৮৫ জন শিশুকে ভিটামিন এ ক্যাপসুল খাওয়ানোর মধ্য দিয়ে পালিত হয়েছে জাতীয় ভিটামিন এ প্লাস ক্যাম্পেইন।

শনিবার ২২ জুন উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে সকাল ৮টা থেকে বিকাল ৪টা পর্যন্ত বিরতীহীনভাবে এ ক্যাম্পেইন চলে।

চকরিয়া উপজেলা স্বাস্থ্য বিভাগের কর্মকর্তা ডাঃ মোহাম্মদ শাহবাজের সার্বিক তত্ত্বাবধানে গতকাল সকালে হাসপাতাল মিলনায়তনে শিশুদের ভিটামিন এ প্লাস ক্যাপসুল খাইয়ে দিয়ে কর্মসূচির উদ্বোধন করছেন কক্সবাজার সিভিল সার্জন ডাঃ আবদুল সালাম। এ সময় উপজেলা স্বাস্থ্য বিভাগের বিভিন্ন পর্যায়ের কর্মকর্তা ও উপজেলা টিকা কেন্দ্রের সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তাগণ উপস্থিত ছিলেন।

ভিটামিন ‘এ’ খাওয়ান, শিশুমৃত্যুর ঝুঁকি কমান ” স্লোগানে জাতীয় ভিটামিন ‘এ’ প্লাস ক্যাম্পেইন উপলক্ষে সংশ্লিষ্টদের অংশগ্রহনে অবহিতকরণ ও পরিকল্পনা সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে।

চকরিয়া উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডাঃ মোহাম্মদ শাহবাজ বলেন, গতকাল ক্যাম্পেইন কর্মসুচির আওতায় শিশুদের স্বাস্থ্য সুরক্ষা নিশ্চিতকল্পে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের সার্বিক তত্বাবধানেও ১৮টি ইউনিয়ন ও একটি পৌরসভা এলাকায় ৪৩৬টি টিকাদান কেন্দ্রে ভিটামিন ‘এ’ প্লাস ক্যাপসুল খাওয়ানো হয়।

তিনি বলেন, এদিন একসঙ্গে ৬ থেকে ১১ মাস বয়সের ৯ হাজার ৩শত ৮০ জন শিশু এবং ১২ থেকে ৫৯ মাস বয়সের ৭৭ হাজার ৮শত ৮৫ জন শিশুকে ক্যাম্পেইনের মাধ্যমে ভিটামিন এ প্লাস খাওয়ানো হয়েছে। অনুষ্ঠিত কর্মসুচিতে স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের ৪৬ জন স্বাস্থ্য সহকারী, ৪৪ জন সিএইচসিপি, ৫০ জন পরিবার কল্যাণ সহকারী, ৮৭২ জন স্বেচ্ছাসেবক ও ৫৪ জন তত্বাবধায়কের দায়িত্ব পালন করেন।

ঘটনাপ্রবাহ: চকরিয়া, ভিটামিন এ ক্যাপসুল

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

16 + fourteen =

আরও পড়ুন