নারী-পুরুষের ভেদাভেদ দূর হয়ে কেবল মানুষ হোক আমাদের পরিচয়

fec-image

আন্তর্জাতিক নারী দিবস উপলক্ষে সকল নারীকে আমার শ্রদ্ধা ও ভালোবাসা। একজন নারী হলো মা, যিনি পৃথিবীর সমস্ত কিছুতে অবদান-ভূমিক রাখেন। যে সন্তান আজ পৃথিবীটাকে অগ্রগতির দিকে নিয়ে যাচ্ছে, সেই সন্তানকে (পুরুষ কিংবা নারী) গড়ে তুলছেন তার মা।

পৃথিবীর মোট জনসংখ্যার অর্ধেকের সামান্য বেশি নারী। নারী-পুরুষের সমান অবদান না থাকলে, কার্যত পৃথিবী অকেজো হয়ে পড়বে। উন্নত দেশগুলোতে নারী-পুরুষ সমানতালে কাজ করে যাচ্ছে। কাজের এবং চলাফেরার স্বাধীনতা উপভোগ করছে। কিন্তু আমাদের দেশে এখনো তা দেখতে পাওয়া যায় না।

আমি বিশ্বাস করি, ধর্মীয় মূল্যবোধকে মাথায় রেখে নারী-পুরুষ সমানতালে কাজ করলে আমাদের দেশটা আরও সমৃদ্ধ হবে। আমাদের দেশের একজন নারী- প্রকৃতপক্ষে একজন যোদ্ধা। পুরো দুনিয়ার পরিস্থিতি ভিন্ন হলেও ভারতীয় উপমহাদেশে নারীকে এখনো পরাধীনতার শিকলে আটকে রাখা হয়। যুদ্ধ করে জীবন-যাপন করতে হয়। পারিবারিক যুদ্ধ, সামাজিক যুদ্ধ, আরও নানান রকমের যুদ্ধ। সমাজের দৃষ্টিভঙ্গির পরিবর্তন হলেই নারীরা এগিয়ে যাবে, সমাজ এগিয়ে যাবে।

নারী-পুরুষের ভেদাভেদ দূর হোক, মানুষ হোক আমাদের পরিচয়। নারী কিংবা পুরুষ হোক শুধুমাত্রই আমাদের জেন্ডার আইডেন্টিটি। সর্বোপরি, মানবতার জয় হোক। আমাদের ‘সাফিয়া ফাউন্ডেশন’ নামে একটা মানবাধিকার সংস্থা আছে। আমরা এই সংস্থার মাধ্যমে নারী উন্নয়নে কাজ করে যাচ্ছি।

নারী-পুরুষের ভেদাভেদ দূর করতে সুশিক্ষার বিকল্প নাই। ‘সাফিয়া ফাউন্ডেশন’ নারী ও শিশুশিক্ষা নিয়ে কাজ করে যাচ্ছে। সমাজের কাজে নিজের সামান্য অবদান থাকলে, বেঁচে থাকার সার্থকতা খুঁজে পাওয়া যাবে।

Print Friendly, PDF & Email
Facebook Comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

eighteen − four =

আরও পড়ুন