ফোন নম্বর ট্র্যাকিং করে ৯দিন পর আটক স্বাস্থ্যসেবা কর্মী শুভ ত্রিপুরা

fec-image

খাগড়াছড়ির রামগড় উপজেলার বৈদ্যপাড়া কমিউনিটি ক্লিনিকের হেলথ কেয়ার প্রোবাইডর (সিএইচসিপি) স্বাস্থ্য সেবা কর্মী শুভ কুমার ত্রিপুরা (২৯)কে নিখোঁজের ৯দিন পর বৃহস্পতিবার (১৯মার্চ) নেত্রকোনার একটি অনাথালয় থেকে আটক করেছে পুলিশ।

তিনি পুলিশকে বলেছেন, স্ত্রীর উৎপীড়ন সহ্য করতে না পেরে পালিয়ে গিয়ে ঐ অনাথালয়ে আত্মগোপন করেন। গত ১০ মার্চ সকাল ৮টার দিকে রামগড়ের নাকাপা বাজার সংলগ্ন তালমনি পাড়ার তার নিজ বাসা থেকে কর্মস্থল বৈদ্যপাড়া হেলথ কমিউনিটি ক্লিনিকে যাওয়ার কথা বলে বের হয়ে লাফাত্তা হয়ে যান।

১১ মার্চ তার স্ত্রী শোভা রাণী ত্রিপুরা রামগড় থানায় স্বামী নিখোঁজের একটি সাধারণ ডায়েরি (জিডি)করেন। পুলিশ জিডির ভিত্তিতে নিখোঁজ শুভ’র সন্ধানে তৎপরতা শুরু করেন। বৃহস্পতিবার রামগড় থানার পুলিশ নেত্রকোনায় আত্মগোপনে থাকা অবস্থায় তাকে আটক করে।

জিডি’র তদন্ত কর্মকর্তা রামগড় থানার এস আই আনোয়ার হোসেন নেত্রকোনা থেকে মুঠোফোনে জানান, বৃহস্পতিবার(১৯মার্চ) নেত্রকোনা জেলার চন্ডিগরস্থ মানব কল্যাণকামী অনাথালয় থেকে আত্মগোপনে থাকা অবস্থায় শুভ ত্রিপুরাকে আটক করা হয়।

তিনি জানান, আটকের পর শুভ পুলিশকে বলেছেন, স্ত্রীর নানা উৎপীড়ন সহ্য করতে না পেরে বাধ্য হয়ে তিনি রামগড় থেকে পালিয়ে এসে নেত্রকোনার ওই অনাথালয়ে আত্মগোপন করে ছিলেন। তদন্ত কর্মকর্তা এসআই আনোয়ার আরও জানান, নিখোঁজ অবস্থায় শুভ’র দুটি মোবাইল নম্বর থেকে তার ছোট ভাই ও জেঠাতো ভাইসহ স্বজনদের কাছে অজ্ঞাত পরিচয়ে বেশ কয়েকবার ফোন করা হয়। ফোন করে সাথে সাথে মোবাইল বন্ধ করে রাখা হয়।

বিশেষ প্রযুক্তি ব্যবহার করে ফোন নম্বর ট্র্যেকিংয়ের মাধ্যমে তার অবস্থান নিশ্চিত হওয়ার পরই তিনিসহ থানার এসআই অজয় চক্রবর্তী, এএসআই আতাউর ও তিন কনস্টেবল গত বুধবার(১৮ মার্চ) নেত্রকোনায় যান শুভকে উদ্ধার করতে। বৃহস্পতিবার তার অবস্থান সুনিদিষ্টভাবে নিশ্চিত হয়ে নেত্রকোনার চন্ডিগড়ের মানবকল্যাণকামী অনাথালয়ে অভিযান চালানো হয়। এ সময় শুভ ত্রিপুরাকে ঐ অনাথালয়ে পাওয়া যায়।

Print Friendly, PDF & Email
ঘটনাপ্রবাহ: আটক
Facebook Comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

4 × five =

আরও পড়ুন