বিজিবি’র সাথে সম্পর্ক ছিন্নের হুমকি দিল মায়ানমারের সীমান্ত রক্ষীবাহিনী

Bandarban-Bjb-Bjp boitok 21.5

স্টাফ রিপোর্টার, বান্দরবান:

বিজিবি’র সাথে সম্পর্ক ছিন্ন করার হুমকি দিলেন মিয়ানমারের সীমান্তরক্ষী বাহিনী বিজিপি। মিয়ানমারের সন্ত্রাসীরা যদি বাংলাদেশের সীমান্ত ব্যবহারের সুযোগ পায় তাহলে বিজিপি বিজিবি’র সাথে সকল সম্পর্ক ছিন্ন করার হুমকি দেয়।

সন্ত্রাসী তৎপরতা দমন নিয়ে গতকাল  বুধবার বান্দরবানের নাইক্ষ্যংছড়ির লেম্বুছড়ি সীমান্তে বাংলাদেশের সীমান্ত রক্ষা বাহিনী বিজিবিমায়ানমারের সীমান্ত রক্ষী বাহিনীর বিজিপির (বর্ডার গার্ড পুলিশ) মধ্যে পতাকা বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়েছে। সেক্টর কমান্ডার পর্যায়ে অনুষ্ঠিত এই পতাকা বৈঠকটি গতকাল দুপুর ১২টায় শুরু হয়ে আড়াইটায় শেষ হয়।

লেম্বুছড়ি সীমান্তের ৫০নং পিলারের কাছে বাংলাদেশের অভ্যন্তরে বাহির মাঠ এলাকায় এই বৈঠকটি অনুষ্ঠিত হয়। বৈঠকে বাংলাদেশের বিজিবির পক্ষে নেতৃত্ব দেন কক্সবাজারের বিজিবির সেক্টর কমান্ডার কর্নেল খন্দকার ফরিদ হোসেন। মায়ানমারের সীমান্ত রক্ষী বাহিনী বিজিপির পক্ষে নেতৃত্ব দেন মংডু সেক্টরের সেক্টর কমান্ডার কর্নেল টিং কোকো। বৈঠকে নাইক্ষ্যংছড়ি কক্সবাজার ও টেকনাফের ব্যাটালিয়ন কমান্ডারগণসহ বিজিবি ও বিজিপির স্থানীয় উর্ধতন কর্মকর্তারা উপন্থিত ছিলেন।

বৈঠকে বান্দরবানের নাইক্ষ্যংছড়ি সীমান্তের বিভিন্ন স্থানে সন্ত্রাসী বাহিনীর তৎপরতা ও মায়ানমারের সীমান্ত রক্ষীবাহিনীর সাথে সংঘর্ষের বিষয়ে আলোচনা হয়েছে। সীমান্তে সন্ত্রাসী তৎপরতা দমনে মায়ানমারের বিজিপি ও বাংলাদেশের বিজিবি উভয়ই একে অপরের সহযোগিতা চেয়েছে। এছাড়া সীমান্তে রোহিঙ্গা অনুপ্রবেশ মাদক পাচার নিয়েও আলোচনা হয় বৈঠকে।

তবে মায়ানমারের বিজিপির পক্ষ হতে বৈঠকে জানানো হয়, সন্ত্রাসীরা বাংলাদেশের ভূখন্ড ব্যবহার করে তাদের উপর হামলা করছে। সন্ত্রাসীদের কোনভাবেই যাতে সীমান্ত এলাকা ব্যবহারের প্রশ্রয় দেয়া না হয় তার জন্য বিজিবির কর্মকর্তাদের সতর্ক থাকার জন্য অনুরোধ করে মায়ানমারের বিজিপির কর্মকর্তা। তারা জানায়, এর পর থেকে কোন ঘটনা ঘটলে তারা বিজিবি’র সাথে সম্পর্ক রাখবে না।

উল্লেখ্য, এ সপ্তাহের শুরুতে বান্দরবানের নাইক্ষ্যংছড়ি সীমান্তের আশারতলি ও বাশিফাঁড়ি এলাকায় জিরো পয়েন্টের কাছে একদল সন্ত্রাসী বাহিনীর সাথে মায়ানমারর বিজিপির সংঘর্ষ হয়। এ ঘটনার পর উভয় দেশই সীমান্তে নিরাপত্তা বাড়িয়েছে।

Print Friendly, PDF & Email
ঘটনাপ্রবাহ: ইয়াবা, চোরাচালান, পাচার
Facebook Comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

one + 17 =

আরও পড়ুন