বৌদ্ধদের হামলার আশঙ্কায় শ্রীলঙ্কায় স্বস্তিতে জুমার নামাজ পড়তে পারলেন না মুসল্লিরা

2bedaa629e1e4bb8fd628261

আন্তর্জাতিক ডেস্ক:

শ্রীলঙ্কার চরমপন্থি বৌদ্ধদের হামলার আশঙ্কায় মুসলমানেরা আজ পবিত্র জুমার নামাজ সংক্ষিপ্ত করতে বাধ্য হয়েছেন। সাম্প্রতিক হামলায় চার মুসলমান নিহত হওয়ার পর দেশজুড়ে মুসলমানদের মধ্যে চরম আতঙ্ক বিরাজ করছে। যে কোনো সময় আবারও হামলা হতে পারে বলে তারা আশঙ্কা প্রকাশ করছেন।

আজ জুমার দিন মুসলমানদের ওপর হামলা হতে পারে, এ আশঙ্কায় দেশটির মুসলিম কাউন্সিল-এমসিএসএল জুমার মূল নামাজের আগে ও পরের বিভিন্ন এবাদত সংক্ষেপ করতে মসজিদের ইমাম ও মুসল্লিদের প্রতি আহ্বান জানিয়েছিল। নামাজ শেষে মুসল্লিরা যাতে শান্তিপূর্ণভাবে মসজিদ থেকে ঘরে ফিরে যান, সে আহ্বানও জানানো হয়েছিল। সতর্কতামূলক পদক্ষেপ হিসেবে মসজিদের ইমামেরা আজ নামাজের সময় শুরু হওয়ার সঙ্গে সঙ্গে তাদের খুতবা শুরু করেন এবং দ্রুত নামাজ শেষ করে নিরাপদে মুসলমানদের বাড়ি ফেরা নিশ্চিত করার চেষ্টা করেন।

এমসিএসএল’র সভাপতি এন.এম. আমিন বলেছেন, তাদের আহ্বানের প্রতি আলেমরাও সমর্থন জানিয়েছিলেন। এসব সতর্কতামূলক পদক্ষেপের কারণে শ্রীলঙ্কায় আজ কোনো ধরনের অপ্রীতিকর ঘটনা ঘটেনি বলে জানা গেছে। কিন্তু প্রশ্ন হচ্ছে- শ্রীলঙ্কার মুসলমানেরকে কি সব সময় আতঙ্কের মধ্যেই থাকতে হবে নাকি সরকার সংখ্যালঘু মুসলমানদের নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে পদক্ষেপ নেবে?

গত ১৫ জুন শ্রীলঙ্কার আলুথগামা শহরের একটি মসজিদের কাছে চরমপন্থি বৌদ্ধদের হামলায় অন্তত চার মুসলমান নিহত হয়। এ সময় উগ্র বৌদ্ধদের দেয়া আগুনে পুড়ে যায় শত শত ঘর-বাড়ি ও ব্যবসা প্রতিষ্ঠান। পুলিশসহ স্থানীয় প্রশাসন মুসলমানদের রক্ষায় যথাযথ ভূমিকা পালন করেনি বলে অভিযোগ উঠেছে। এর প্রতিবাদে গতকাল (বৃহস্পতিবার) দেশটির মুসলিম ব্যবসায়ীরা রাজধানী কাবুলে ধর্মঘট পালন করেছে। বৌদ্ধ অধ্যুষিত শ্রীলঙ্কার মোট জনসংখ্যার শতকরা ১০ ভাগ হচ্ছে মুসলমান। কয়েক জন বিশ্লেষক বলেছেন, তালেবান, আল-কায়েদা ও আইএসআইএলের মতো কিছু উগ্র গোষ্ঠীর ইসলামবিরোধী কর্মকাণ্ডের কারণে বিভিন্ন দেশে ইসলামভীতি ছড়িয়ে পড়ছে। এর ফলে সব মুসলমানই ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছে।

সূত্র: আইআরআইবি, ছবি- বৌদ্ধদের সাম্প্রতিক হামলার চিহ্ন

Print Friendly, PDF & Email
Facebook Comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরও পড়ুন