বান্দরবানের ঘুমধুমে বন্দুকযুদ্ধ: ৮০ হাজার ইয়াবা, অস্ত্র, গুলিসহ রোহিঙ্গার লাশ উদ্ধার

fec-image

বান্দরবানের নাইক্ষ্যংছড়ি উপজেলার ঘুমধুম বাইশফাঁড়িতে বিজিবির সাথে বন্দুকযুদ্ধে এক রোহিঙ্গা নাগরিক মারা গেছে।

সোমবার (১ জুন) ভোর ৫টার দিকে জেলার নাইক্ষ্যংছড়ি উপজেলার ঘুমধুম ইউনিয়নের বাইশফাঁড়ি চেয়ারম্যানের গোঁদারবিল নামক স্থানে এই বন্দুকযুদ্ধের ঘটনা ঘটে।

নিহত ইয়াবা কারবারীর নাম পরিচয় পাওয়া যায়নি। ধারনা করা হচ্ছে সে শরণার্থী ক্যাম্পে বসবাসরত রোহিঙ্গা নাগরিক। ঘটনাস্থল থেকে ৮০ হাজার পিচ ইয়াবা, ১টি বন্দুক ও ২রাউন্ড গুলি উদ্ধার করেছে বিজিবি।

জানা গেছে, সোমবার ভোররাতে মিয়ানমার সীমান্ত এলাকা থেকে বিপুল পরিমাণ ইয়াবা পাচার হচ্ছে এমন গোয়েন্দা তথ্যের ভিত্তিতে টহলরত বিজিবির সদস্যারা অভিযান চালায়।

এসময় বিজিবির উপস্থিতি টেরপেয়ে ইয়াবা কারবারীরা গুলি ছুঁড়ে। বিজিবিও পাল্টা গুলি চালায়। পরে ঘটনাস্থলে গুলিবিদ্ধ “অজ্ঞাত” ব্যক্তির লাশসহ বিপুল পরিমাণ ইয়াবা, অস্ত্র ও গুলি উদ্ধার করা হয়।

কক্সবাজার বিজিবির অধিনায়কের নির্দেশনায় অভিযানে নেতৃত্ব দেন বিজিবির বাইশফাঁড়ি বিওপির নায়েক সুবেদার মো. আবুল বাশার।

ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে কক্সবাজার বিজিবি ৩৪ ব্যাটালিয়নের অধিনায়ক লেফটেন্যান্ট কর্নেল আলী হায়দার আজাদ আহমেদ বলেন, ইয়াবা কারবারীর নাম পরিচয় পাওয়া যায়নি, ধারনা করা হচ্ছে রোহিঙ্গা নাগরিক। তবে ঘটনাস্থল থেকে ৮০হাজার ইয়াবা, একটি বন্দুক ও ২রাউন্ড গুলি উদ্ধার হয়েছে।

এদিকে ঘটনার পর এই সংবাদ লিখা পর্যন্ত লাশ উদ্ধারে কার্যক্রম চালাচ্ছিল বিজিবি-পুলিশ। সোমবার সকালে ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন বিজিবির কক্সবাজার অধিনায়ক।

Print Friendly, PDF & Email
ঘটনাপ্রবাহ: ইয়াবা, বান্দরবান, বিজিবি
Facebook Comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

sixteen − 15 =

আরও পড়ুন