নাইক্ষ্যংছড়িতে বঙ্গবন্ধুর স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবস পালিত

নাইক্ষ্যংছড়ি প্রতিনিধি:

১০ জানুয়ারি ২০১৯ নানা কর্মসূচি পালনের মধ্য দিয়ে বান্দরবানের নাইক্ষ্যংছড়ি উপজেলা আওয়ামী লীগের উদ্যোগে আয়োজিত জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ঐতিহাসিক স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবস পালিত হয়েছে ।

বৃহস্পতিবার দিবসটি পালন উপলক্ষে সকালে উপজেলা প্রশাসনের চির জাগ্রত বাংলাদেশ চত্ত্বরে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের প্রতিকৃতিতে শ্রদ্ধাঞ্জলি নিবেদন, দলীয় কার্যালয়ে জাতীয় ও দলীয় পতাকা উত্তোলন, বঙ্গবন্ধু ও তার পরিবারের সদস্যদের রুহের মাগফেরাত কামনা করে দোয়া মাহফিল ও আলোচনা সভার আয়োজন করা হয়।

দলীয় সূত্র জানান, দিবসটি পালন উপলক্ষে নাইক্ষ্যংছড়ি উপজেলা আওয়ামী লীগ ও অঙ্গ-সহযোগী সংগঠনের উদ্যোগে সকালে জাতির পিতার প্রতিকৃতিতে শ্রদ্ধা নিবেদন করা হয়। পরে বঙ্গবন্ধু ও তার পরিবারের নিহত সদস্যদের রুহের মাগফেরাত কামনা করে ফাতেহা পাঠ ও বিশেষ মোনাজাত করা হয়। বিকেল সাড়ে ৩টায় দলীয় কার্যালয়ের প্রাঙ্গনে তসলিম ইকবাল চৌধুরীর সভাপতিত্বে কলেজ ছাত্রলীগ সাধারণ সম্পাদক মুমিনুল আলম মুমু সঞ্চালনায় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ও বক্তব্য রাখেন আওয়ামী লীগ সভাপতি অধ্যাপক মো, শফি উল্লাহ।

বক্তারা বলেন, ১৯৭১ সালের ২৫ মার্চ বঙ্গবন্ধুকে তার ধানমণ্ডির ৩২ নম্বর সড়কের বাসভবন থেকে পাকিস্তানি সেনারা আটক করে তৎকালীন পশ্চিম পাকিস্তানে নিয়ে যায়। ওই রাতেই বাংলাদেশের নিরস্ত্র মানুষের ওপর শুরু হয় বর্বর হামলা।

পাকিস্তানি বাহিনীর হাতে গ্রেফতার হওয়ার আগে স্বাধীনতার ঘোষণা দিয়ে যান বঙ্গবন্ধু। তার ডাকে বাঙালি ঝাঁপিয়ে পড়ে মুক্তি সংগ্রামে।

নয় মাসের রক্তক্ষয়ী যুদ্ধ শেষে ১৯৭১ সালের ১৬ ডিসেম্বর পাকিস্তানি বাহিনীর আত্মসমর্পণের মধ্য দিয়ে বিশ্ব মানচিত্রে স্বাধীন বাংলাদেশের অভ্যুদয় ঘটে।

বঙ্গবন্ধু সেখানে সদ্য স্বাধীন জাতির উদ্দেশে ভাষণ দেন। প্রায় কুড়ি মিনিটের সেই আবেগঘন বক্তৃতায় তিনি বলেন, পশ্চিম পাকিস্তানে বন্দিদশায় তিনি ফাঁসিরকাষ্ঠে যাওয়ার জন্য প্রস্তুত ছিলেন। কিন্তু তিনি জানতেন, বাঙালিকে কেউ ‘দাবায় রাখতে’ পারবে না।

এ সময় অন্যান্যদের মাঝে উপস্থিত ও বক্তব্য রাখেন, উপজেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি ও সদর ইউপি চেয়ারম্যান তসলিম ইকবাল চৌধুরী, বান্দরবান জেলা পরিষদ সদস্য কেনু ওয়ান চাক্, উপজেলা আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক মো, ইমরান মেম্বার, যুগ্ম-সম্পাদক আবু তাহের বাহাদুর, কৃষকলীগ সভাপতি মোস্তাফা কামাল লালু, সাঃ সম্পাদক সাইফুদ্দীন মামুন শিমুল, স্বেচ্ছাসেবকলীগ সভাপতি মো, আব্দুস সাত্তার, মহিলা আওয়ামী লীগ সাঃ সম্পাদীকা ওজিফা খাতুন রুবী, যুবলীগ সাধারণ সম্পাদক মো, আলী হোসেন মেম্বার, ছাত্রলীগ সাধারণ সম্পাদক উবাচিং মার্মা, এম, এ কালাম সরকারি ডিগ্রি কলেজ ছাত্রলীগ সভাপতি ইরফান মাহাবুব রায়হানসহ আওয়ামী লীগ ও তার সহযোগী ও ভ্রাতৃপ্রতিম সংগঠনের নেতা-কর্মীরা উপস্থিত ছিলেন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

eighteen + twenty =

আরও পড়ুন