খাগড়াছড়ির রামগড়ে বিয়ের প্রলোভনে টানা ধর্ষণে স্কুল ছাত্রী ৮ মাসের অন্ত:সত্বা, ধর্ষক গ্রেফতার

fec-image

খাগড়াছড়ির রামগড়ে বিয়ের প্রলোভনে দেখিয়ে এক স্কুল ছাত্রীকে টানা ধর্ষণণের অভিযোগ উঠেছে। পুলিশ ধর্ষক দীপ্ত ত্রিপুরাকে গ্রেফতার করেছে। বর্তমানে মেয়েটি ৮ মাসের গর্ভবতী বলে পুলিশ জানিয়েছে।

জানা গেছে, ধর্ষনের শিকার মেয়েটি খাগড়াছড়ির রামগড় বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ে অধ্যায়ন করতো। পিতা হাসিরাম ত্রিপুরা হত-দরিদ্র হওয়ায় তার খাগড়াছড়ির রামগড় উপজেলার বেলছড়ির বাসিন্দা হতদরিদ্র হাসিরাম ত্রিপুরা তার মেয়েকে একই উপজেলার রামগড়ের মহামুনি এলাকার বাসিন্দা ভূবন মোহন ত্রিপুরার বাসায় রেখে লেখা পড়া করাতেন।

সে সুযোগে ভুবণ মোহন ত্রিপুরার ছেলে দীপ্ত ত্রিপুরা মেয়েটিকে বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে দৈহিক সম্পর্ক গড়ে তুলে।

এক পর্যায়ে মেয়ে অন্তঃসত্বা হয়ে পড়লে বিষয়টি নিয়ে মেয়ের পরিবার ত্রিপুরা কল্যান সংসদের বিচারপ্রার্থী হয়।

কিন্তু ২ দফায় বিচারে বসেও কোন সুরাহা করতে না পারায় মেয়ের পিতা রামগড় থানায় নারী ও শিশু নির্যাতন আইনে মামলা করেন।

রামগড় থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মোহাম্মদ সামসুজ্জামান জানান, শুক্রবার(২৬ জুন) দিবাগত রাত সাড়ে ১২ টায় হাসিরাম ত্রিপুরা থানায় মামলা করলে রাত ২টায় আসামি ধর্ষক দীপ্ত ত্রিপুরা গ্রেফতার করে।

Print Friendly, PDF & Email
ঘটনাপ্রবাহ: ত্রিপুরা, ধর্ষণ, রামগড়
Facebook Comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

5 × two =

আরও পড়ুন