চকরিয়ায় বদরখালী জেনারেল হাসপাতালে দুর্বৃত্তের হামলা, ভাংচুর- লুটপাট

fec-image

কক্সবাজারের চকরিয়ায় তুচ্ছ ঘটনাকে কেন্দ্র করে উপকূলীয় জনপদ বদরখালীর জেনারেল হাসপাতালে একদল দুর্বৃত্ত হামলা ও ভাংচুর চালিয়ে লুটপাট করেছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। এ ঘটনায় দুই ব্যক্তি আহত হয়। খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন। এ নিয়ে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ বাদী হয়ে বুধবার (১৮ সেপ্টেম্বর) রাতে তিন জনকে আসামি করে থানায় মামলা দায়ের করেছে।

গত মঙ্গলবার (১৭ সেপ্টেম্বর) সকাল নয়টার দিকে উপজেলার উপকূলীয় বদরখালী ইউনিয়নস্থ বদরখালী জেনারেল হাসপাতালে এ হামলা ও ভাংচুরের ঘটনা ঘটে।

অভিযোগ সূত্রে জানা গেছে, বদরখালী ইউনিয়নের ২নম্বর ব্লকের সাতডালিয়া পাড়া এলাকার হোছন মোহাম্মদ কালু ড্রাইভারের স্ত্রী গত মঙ্গলবার জেনারেল হাসপাতালে চিকিৎসা করতে যান। ওই সময় হাসপাতালে দায়িত্বরত কর্মচারীর সাথে তুচ্ছ বিষয় নিয়ে তর্কে জড়িয়ে পড়েন। ঘটনার একপর্যায়ে হাসপাতালে চিকিৎসার জন্য আসা কালু ড্রাইভারের স্ত্রী তার স্বামী ও আত্মীয় স্বজনকে মুঠোফোনে খবর দেয়।

পরে হোছন মোহাম্মদ কালু ড্রাইভারের নেতৃত্বে ১০/১২ জনের একদল দুর্বৃত্ত দেশীয় তৈরি ধারালো অস্ত্র-শস্ত্র নিয়ে অতর্কিত ভাবে বদরখালী জেনারেল হাসপাতালে ঢুকে ব্যাপক হামলা ও ভাংচুর চালিয়ে লুটপাট করে।

ওই সময় হাসপাতালে দায়িত্বরত ব্যবস্থাপনা পরিচালক কাইছার হামিদ তাদের বাঁধা দিতে গেলে তাকেসহ দুই ব্যক্তিকে আহত করেছে দূর্বৃত্তরা। দুবৃর্ত্তরা হাসপাতালের বিভিন্ন রুম ও রিসিভশন ভাংচুর করে ক্যাশের রক্ষিত ৮৫হাজার টাকা লুট করে নিয়ে যায়। স্থানীয়রা এগিয়ে আসলে দুর্বৃত্তরা পালিয়ে যান। পরে পুলিশ এসে ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে।

এ ঘটনায় হাসপাতালে ব্যবস্থাপনা পরিচালক বাদী হয়ে ঘটনায় জড়িতদের বিরুদ্ধে বুধবার রাতে থানায় তিন জনকে আসামী করে ৫/৬জনকে অজ্ঞাত দেখিয়ে মামলা দায়ের করেছে।

বদরখালী জেনারেল হাসপাতালে ব্যবস্থাপনা পরিচালক (এমডি) মো.কাইছার হামিদ বলেন, তুচ্ছ বিষয় নিয়ে সাতডালিয়া পাড়া এলাকার কালু ড্রাইভারের নেতৃত্বে ১০/১২ জন সন্ত্রাসীরা অতর্কিত ভাবে হাসপাতালে ঢুকে হামলা, ভাংচুর ও লুটপাট চালায়। এ সময় ক্যাশ বক্সে রক্ষিত ৮৫ হাজার টাকা ও মালামাল লুট করে নিয়ে যায়। এছাড়া ভাংচুরের ঘটনায় তার দেড় লক্ষ টাকার ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে দাবি করেন। এ নিয়ে অভিযুক্তদের বিরুদ্ধে থানায় মামলা করেছে বলেও জানান তিনি।

চকরিয়া থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মো.হাবিবুর রহমান বলেন, বদরখালীর জেনারেল হাসপাতালে হামলা ও ভাংচুর চালিয়ে লুটপাটের ঘটনার বিষয়ে থানায় একটি মামলা দায়ের করেছে। ঘটনায় অভিযুক্ত আসামীদের গ্রেপ্তারে পুলিশের অভিযান অব্যাহত রয়েছে বলে তিনি জানান।

Print Friendly, PDF & Email
Facebook Comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

twelve − 5 =

আরও পড়ুন