কাপ্তাই শিল্প এলাকায় বন্যহাতির তাণ্ডবে দোকানসহ ৮ বসত-ভিটা ক্ষতিগ্রস্ত 

fec-image

কাপ্তাই শিল্প এলাকা ও সুইডিশ মার্কেটে বন্যহাতির তাণ্ডব। হামলায় ২টি দোকান ও ৬টি বসতভিটা ক্ষতিগ্রস্ত। প্রতিনিয়ত এলাকার লোকজনের মধ্যে আতঙ্ক বিরাজ করছে। বন্য হাতির আতঙ্কে জ্ঞান হারিয়ে ফেলছে রাতে ঘুমিয়ে থাকা শিশুসহ পরিবার পরিজন।

শিল্প এলাকার বসবাসরত লোকজন অভিযোগ করেন, দীর্ঘ একমাস যাবৎ একটি বন্য হাতি পার্শ্ববতী বন হতে শিল্প এলাকা, সুইডিশ মার্কেট, কেপিএম চিপার হাউজসহ বিভিন্ন এলাকায় তাণ্ডব লিলা করে যাচ্ছে।

উক্ত হাতিটি লোকালয়ে এসে লোকজনের বসত ভিটার কলাগাছ, নারিকেল গাছের পাশা-পাশি বসতভিটা এবং সুইডিশ মার্কেটের জাকির হোসন ও জয়নালের দোকান ভেঙ্গে পঞ্চাশ হাজার টাকার মালামালের ক্ষতি করছে।

মসজিদের ইমাম আনোয়ার হোসেন ও মুয়াজ্জিন ইসমাইল ফজরের নামাজ পড়তে এসে হাতির আক্রমণে আহত হয়ে বিভিন্ন সময় সমস্যায় পড়ছে বলে উল্লেখ করেন।

এলাকার ক্ষতিগ্রস্ত আবু ইউসুফ, মিন্টু মিয়া, ফারুক, হালিম, আব্দুল মালেক, ইকবাল ও কবির আহমদ বলেন, দীর্ঘ এক মাস যাবৎ এ হাতিটি রাতে কিংবা ভোর রাতে এসে আমাদের বসত ভিটার গাছপালা ভেঙ্গে সাবাড় করে দিচ্ছে। সর্বশেষ বাসা বাড়িতে এসে হামলা করছে। আমরা এখন ঘরে থাকাটাও মুশকিল হয়ে পড়েছে।

এদিকে মঙ্গলবার(২৫ আগস্ট) ক্ষতিগ্রস্ত ফারুক জানান, ভোর ৩টায় হাতিটি বাসায় হামলা করে নারিকেল গাছ চালের ওপর ফেলে দেয় এবং বসতির ব্যাপক ক্ষতিগ্রস্ত করে।

রাতে আমার স্ত্রী ও কন্যা বৃষ্টি আতঙ্কে জ্ঞান হারিয়ে ফেলে বলে উল্লেখ করেন। রাতে মানুষের ঘুম হারাম হয়ে গেছে।

এদিকে এলাকার সচেতন নাগরিক আকতার আলম, আব্দুল মান্নান বলেন, প্রতিনিয় আমরা বিভিন্ন প্রকার, বাঁশি বাজিয়ে, আগুন জালিয়ে তাড়ানোর চেষ্টা করেও ব্যর্থ হয়েছি।

উক্ত হাতিটি যে কোন সময় বড় ধরনের একটি ঘটনা ঘটনার পূর্বে প্রশাসন তথা বন বিভাগ এর একটি ব্যবস্থা করা প্রয়োজন বলে মন্তব্য করেন।

এদিকে সকালে উপজেলা নির্বাহী অফিসার মুনতাসির জাহান, ইউপি চেয়ারম্যান প্রকৌশলী আব্দুল লতিফ, কাপ্তাই রেঞ্জ কর্মকর্তা মাহাবুব উল আলম, সিএমসি সভাপতি কাজী মাকসুদুর রহমান বাবুল, বিএফআই ডিসির মাঠ পরিদর্শক আমান উল্লাসহ সবস্থরের লোকজন ক্ষতিগ্রস্ত পরিদর্শন করে।

কাপ্তাই রেঞ্জ কর্মকর্তা মাহাবুব উল আলম বলেন, বনের মধ্যে খাবার না থাকার কারনে এরা লোকালয়ে এস এ তাণ্ডব করছে। আমরা প্রশাসনিকভাবে এদের একটা ব্যবস্থা নিচ্ছি বলে উল্লেখ করেন।

পরিদর্শন শেষে সিদ্বান্ত হয় বন্যহাতি আসলে আতাঁশ বাজি ফুটিয়ে প্রাথমিক অবস্থায়  এদের তাড়াতে হবে।

Print Friendly, PDF & Email
ঘটনাপ্রবাহ: উপজেলা নির্বাহী অফিসার, কাপ্তাই, বন বিভাগ
Facebook Comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

six + 14 =

আরও পড়ুন