প্রেসিডেন্ট রায়িসির অস্তিত্বজুড়েই ছিল সততা, আন্তরিকতা ও জনসেবা: ইরাকের প্রধানমন্ত্রী

fec-image

ইরাকের প্রধানমন্ত্রী মুহাম্মাদ শিয়া আস সুদানি আজ (বুধবার) ইরানের সর্বোচ্চ নেতা আয়াতুল্লাহিল উজমা খামেনেয়ীর সঙ্গে সাক্ষাৎ করে প্রেসিডেন্ট সাইয়্যেদ ইব্রাহিম রায়িসি ও তার সফরসঙ্গীদের শাহাদাতে গভীর শোক ও সমবেদনা জানিয়েছেন।

হেলিকপ্টার দুর্ঘটনায় শহীদ রায়িসি ও তার সফরসঙ্গীদের প্রতি শ্রদ্ধা জানাতেই তিনি তেহরান সফরে এসেছেন।

ইরানের সর্বোচ্চ নেতার সঙ্গে বৈঠকে তিনি বলেন, ‘ইরাকের জনগণ ও সরকারের পক্ষ থেকে ইরানের জনগণ ও সরকারের প্রতি গভীর শোক ও সমবেদনা জানাচ্ছি। জনাব রায়িসির অস্তিত্বজুড়েই ছিল সততা, ইখলাস, পবিত্রতা, চেষ্টা-প্রচেষ্টা ও জনসেবা।’

জনসেবার কারণেই শহীদ রায়িসির শেষবিদায় অনুষ্ঠানে মানুষের ঢল নেমেছে বলে তিনি মন্তব্য করেন। বাইরের সকল চাপ ও নিষেধাজ্ঞা সত্ত্বেও ইসলামি প্রজাতন্ত্র ইরানের জনগণ ও সরকারের মধ্যে সম্পর্ক অটুট রয়েছে বলে মনে করেন।

এ সময় ইরানের সর্বোচ্চ নেতা তেহরানে এসে সমবেদনা প্রকাশের জন্যে ইরাকি প্রধানমন্ত্রীকে ধন্যবাদ জানান। তিনি বলেন, আমরা একজন অসামান্য ব্যক্তিত্বকে হারিয়েছি। প্রেসিডেন্ট রায়িসি ছিলেন খুবই দক্ষ, যোগ্য ও আন্তরিক রাষ্ট্রনেতা।

তিনি আরও বলেন, সংবিধান অনুযায়ী মোহাম্মাদ মুখবের নির্বাহী বিভাগ পরিচালনার গুরু দায়িত্ব নিয়েছেন। তিনি ইরাক সরকারের সাথে সহযোগিতা অব্যাহত রাখবেন এবং চুক্তিগুলোর বাস্তবায়ন করে যাবেন।

Print Friendly, PDF & Email
ঘটনাপ্রবাহ: ইরাক, ইরান, প্রেসিডেন্ট রাইসি
Facebook Comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরও পড়ুন