মাটিরাঙ্গায় নিরাপত্তাবাহিনীর শীতবস্ত্র বিতরণ

নিজস্ব প্রতিবেদক, মাটিরাঙ্গা:

দুঃস্থ, অসহায় ও শীতার্ত মানুষের মাঝে শীতের কম্বল ও দুঃস্থদের মাঝে ঢেউটিন বিতরণ করেছে নিরাপত্তাবাহিনীর ১৭, ফেল্ড রেজিমেন্ট আর্টিলারী। রোববার (১৭ ডিসেম্বর) বেলা সাড়ে ১২টার দিকে মাটিরাঙ্গা জোন সদরে শীতবস্ত্র বিতরণ কার্যক্রমের উদ্বোধন করেন গুইমারা রিজিয়ন কমান্ডার ব্রিগেডিয়ার জেনারেল মো. কামরুজ্জামান, এনডিসি, পিএসসি, জি।

নিজ নিজ অবস্থান থেকে সহযোগিতার হাত বাড়ানো হলে সব সমস্যা সমাধান সম্ভব বলেও মন্তব্য করে গুইমারা রিজিয়নের কমান্ডার ব্রিগেডিয়ার জেনারেল মো. কামরুজ্জামান পিএসসি, এনডিসি-জি বলেন, একটি দায়িত্বশীল বাহিনী হিসেবে নিরাপত্তাবাহিনী দেশের কল্যাণে কাজ করার পাশাপাশি সমাজের অসহায় দুঃস্থ মানুষগুলোর জন্য কাজ করার চেষ্টা করছে।

পাহাড়ে শান্তি থাকলেই উন্নয়ন হবে মন্তব্য করে তিনি বলেন, শান্তি-সম্প্রীতি আর উন্নয়ন নিশ্চিত হলেই পাহাড়ের পিছিয়ে পড়া দুঃস্থ মানুষগুলো স্বনির্ভর হবে।

এসময় খাগড়াছড়ি পার্বত্য জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান কংজরী চৌধুরী, গুইমারা রিজিয়নের জিটুআই মেজর মো. আশিকুর রহমান, গুইমারা রিজিয়ন সদর দপ্তরের ডিএএএন্ডকিউএমজি মেজর নাফিদাত হুসাইন, মাটিরাঙ্গা সেনা জোনের স্টাফ অফিসার মেজর ইমরুল কায়েস মেহেদী, মাটিরাঙ্গা উপজেলার চেয়ারম্যান মো. তাজুল ইসলাম ও মাটিরাঙ্গা পৌরসভার মেয়র মো. শামছুল হক ছাড়াও এ আয়োজনে পদস্থ সামরিক-বেসামরিক কর্মকর্তা, শিক্ষক ও স্থানীয় জনপ্রতিনিধিগণ উপস্থিত ছিলেন।

কম্বল বিতরণের অংশ হিসেবে মাটিরাঙ্গা পৌরসভাসহ মাটিরাঙ্গা ও গুইমারা ইউনিয়নের ৫‘শ অসহায় ও দুঃস্থ ব্যক্তিদের মাঝে কম্বল বিতরণ ছাড়াও দুঃস্থদের মাঝে ঢেউটিন ও নগদ আর্থিক সহায়তা প্রদান করা হয়। পর্যায়ক্রমে জোনের দায়িত্বপূর্ণ বিভিন্ন এলাকায় সামাজিক কর্মকাণ্ড অব্যাহত রাখা হবে বলে জানান ১৭ ফিল্ড রেজিমেন্ট আর্টিলারী মাটিরাঙ্গা জোনের অধিনায়ক লে. কর্ণেল কাজী শামশের উদ্দিন পিএসসি-জি।

এর পরপরই মাটিরাঙ্গা জোন সদরের সুসজ্জিত প্যান্ডেলে আমন্ত্রিত অতিথিদের সাথে নিয়ে ১২তম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী‘র কেক কাটার মধ্য দিয়ে অনুষ্ঠানের শুভ সূচনা করেন গুইমারা রিজিয়ন কমান্ডার ব্রিগেডিয়ার জেনারেল মো. কামরুজ্জামান, এনডিসি, পিএসসি, জি।

Print Friendly, PDF & Email
Facebook Comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

10 + 18 =

আরও পড়ুন