রাজধানীতে খাগড়াছড়ির ধর্মান্তরিত তরুণীর ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার

fec-image

রাজধানীর আগারগাঁওয়ে সংসদ সচিবালয় কোয়ার্টার থেকে তার নাম নুসরাত জাহান (২৮) নামের এক নারীর ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। তার বাড়ি খাগড়াছড়ি। ত্রিপুরা সম্প্রদায়ের এই তরুণী ধর্মান্তরিত হয়ে নাম পরিবর্তন করেছিলেন।

এসময় নিবেদিতার লাশের পাশে একটি সুসাইড নোট পাওয়া যায় বলে জানায় পুলিশ। কিন্তু তদন্ত চলমান থাকায় সুসাইড নোটে কি লেখা ছিল তা জানাতে অপারগতা জানান তদন্তে কর্মরত পুলিশ কর্মকর্তা।

ঘটনার পর থেকে নুসরাতের স্বামী মামুন মিল্লাত পলাতক রয়েছেন, যিনি বিয়ের আগে নিজেকে বিসিএস ক্যাডারের পুলিশ কর্মকর্তা পরিচয় দিয়েছিলেন বলে শেরেবাংলা নগর থানার উপপরিদর্শক (এসআই) আশীষ সরকার জানিয়েছেন।

শনিবার দুপুর দেড়টায় জাতীয় জরুরি সেবা ৯৯৯ নম্বরে প্রতিবেশীদের ফোন পেয়ে পুলিশ সংসদ সচিবালয়ের বি-২ নম্বর কোয়ার্টারে গিয়ে বাসার দরজা ভেঙে সিলিং ফ্যানের সঙ্গে ঝুলন্ত অবস্থায় নুসরাতের লাশ উদ্ধার করে।

উপপরিদর্শক আশীষ গণমাধ্যমকে বলেন, “নিহতের স্বামী মামুন মিল্লাত নিজেকে ৩৮তম বিসিএসের পুলিশ কর্মকর্তা পরিচয়ে নুসরাতকে নিয়ে ওই কোয়ার্টারে সাবলেটে বসবাস করে আসছিলেন।“

নুসরাতের স্বজনদের বরাত দিয়ে তিনি জানান, বিয়ের সময় মামুন নিজেকে পুলিশ কর্মকর্তা পরিচয় দিলেও তা ছিল ভুয়া। এটা জানার পর থেকে তাদের মধ্যে নিয়মিত ঝগড়া হত।

এই ঘটনার পরে পুলিশও তার ব্যাপারে খোঁজ নিয়ে জানতে পারে মামুন পুলিশ কর্মকর্তা নন। তিনি কিছুই করেন না বলে শেরেবাংলা থানার এসআই আশীষ জানান।

রোয়াজা ওরফে নুসরাত খাগড়াছড়ি সরকারি কলেজের শিক্ষার্থী থাকার সময় সক্রিয়ভাবে ছাত্রলীগ করতেন। সরকারের প্রভাবশালী মন্ত্রী, এমপিদের সাথে তার ঘনিষ্ঠ যোগাযোগ ছিলো। নিজের ফেসবুকে নিয়মিতভাবে সরকারের প্রভাবশালী ব্যক্তিদের সাথে ছবি তুলে পোস্ট করতেন। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে বেশ আলোচিত ছিলেন তিনি।

নিবেদিতা ভালবেসে বাঙালি ছেলেকে বিয়ে করে প্রথমবার আলোচনায় আসেন। পাহাড়ের আঞ্চলিক দলগুলোর কাছে এটি নিষিদ্ধ সম্পর্ক ও এর জন্য কঠোর শাস্তি বিধান রয়েছে। নিবেদিতাকেও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে হুমকি দেয়া হলেও শাসকদলের সাথে সম্পৃক্ত থাকায় তিনি এই হুমকি পাত্তা দেননি।

এরপর স্বামীর সাথে একান্ত সম্পর্কে ২ মিনিট ৪১ সেকেণ্ডের একটি ভিডিও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়লে নিবেদিতা দ্বিতীয়বার আলোচনায় আসেন। স্বেচ্ছায় তোলা এই এডাল্ট ভিডিওকেও তেমন পাত্তা দেননি ড্যামকেয়ার স্বভাবের এই নেত্রী। তবে বিষয়টি নিয়ে তাদের মধ্যে মনোমালিন্য শুরু হয় বলে বিভিন্ন সূত্রে জানা গিয়েছে।

পুলিশ জানায়, ধর্মান্তরিত এই নারী ২০১৯ সালে মামুন মিল্লাতকে বিয়ের পর ধর্মান্তরিত হয়ে মুসলিম হন। লাশ উদ্ধার করে বিকালে ময়নাতদন্তের জন্য শহীদ সোহরাওয়ার্দী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়েছে।

পুলিশ এই ঘটনাটিকে আত্মহত্যা বললেও নিবেদিতার আত্মীয় স্বজন এটিকে হত্যাকাণ্ড বলে ধারণা করছেন। ইতিমধ্যে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে নিবেদিতার নিহতের ঘটনা নিয়ে তার সহকর্মীরা এটাকে হত্যাকাণ্ড দাবি করে নিহতের স্বামী মামুনের বিচার দাবি করছেন।

জানা যায়, খাগড়াছড়ি জেলা ছাত্রলীগের সদস্য থাকাকালীন মিল্লাত মামুনের সাথে প্রেম হয় নিবেদিতার। তারপর সনাতন ধর্ম থেকে ধর্মান্তরিত হয়ে পরিবারের অনিচ্ছায় বিয়ে করে ঢাকায় স্বামীর সাথে স্থায়ীভাবে থাকতে শুরু করেন।

এই ঘটনায় নিহত নুসরাতের বাবা ও চাচা রাত ১০টায় শেরেবাংলা নগর থানায় একটি অভিযোগ দায়ের করেন। তদন্ত সাপেক্ষে যথাযথ আইনি ব্যবস্থা নেওয়া হবে বলে জানান এসআই আশীষ।

Print Friendly, PDF & Email
ঘটনাপ্রবাহ: আত্মহত্যা, নিবেদিতা রোয়াজা
Facebook Comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

thirteen + six =

আরও পড়ুন