উখিয়ায় এনজিওকর্মীকে ইভটিজিং, প্রতিবাদ করায় কুপিয়ে জখম

fec-image

কক্সবাজারের উখিয়ার রোহিঙ্গা ক্যাম্পে এনজিও সংস্থা মুক্তি কক্সবাজার-এ কর্মরত ডেইজি বড়ুয়া নামের এক এনজিওকর্মী রোহিঙ্গা বখাটের কর্তৃক ইভটিজিংয়ের শিকার হয়েছে। প্রতিবাদ করায় এলোপাতাড়ি কুপিয়ে গুরুতর আহত করেছে।

মঙ্গলবার (২৮ জুন) সকাল সোয়া ১০টার দিকে ক্যাম্প-২ ওয়েস্ট এর ১৮ নম্বর লার্নিং সেন্টারে এ ঘটনা ঘটে।

এ ঘটনায় মোহাম্মদ আলম (৩৫) নামের মাদকাসক্ত এক রোহিঙ্গা যুবককে আটক করেছে করেছে ১৪ এপিবিএন। এ সময় রক্তাক্ত একটি দা উদ্ধার করা হয়। আটক আলম ক্যাম্প- ২/ডাব্লিউ বি-ব্লকের সামসুল আলমের ছেলে।

মুক্তি কক্সবাজার এর প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা বিমল চন্দ্র দে সরকার বলেন, মাদকাসক্ত এক রোহিঙ্গা যুবক হঠাৎ লার্নিং সেন্টারে ঢুকে অসৌজন্যমূলক আচরণ করে, পরবর্তীতে তাকে এলোপাতাড়ি কোপায়। এসময় আশপাশের লোকজন এগিয়ে এসে তাকে উদ্ধার করে প্রথমে উখিয়ার কুতুপালং এমএসএফ হাস্পাতালে ভর্তি করা হয়। সেখানে অবস্থার অবনতি হলে তাকে কক্সবাজার সদর হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়।

তিনি জানান, ঘটনার পরপরই বিষয়টি ক্যাম্প ইনচার্জকে অবহিত করা হয়েছে। মুক্তি কক্সবাজার এর পক্ষ থেকে আহত শিক্ষিকার চিকিৎসার বিষয়টি নিশ্চিত করা হয়েছে ৷

কক্সবাজার সদর হাসপাতালের আবাসিক চিকিৎসা কর্মকর্তা (আরএমও) আশেকুর রহমান বলেন, ওই শিক্ষিকার পা, মাথাসহ শরীরের বিভিন্ন অংশে গুরুতর জখম হয়েছে। তাঁর অবস্থা এখনও আশঙ্কামুক্ত নয়।

ক্যাম্পে নিরাপত্তার দায়িত্বে নিয়োজিত ১৪ এপিবিএন এর অধিনায়ক নাঈমুল হক বলেন, উক্ত এনজিওকর্মীকে বিনা কারণে হাতে থাকা দা দিয়ে ডান হাত ও বামহাত কব্জি, পিঠে ও মাথায় কোপ দিয়ে গুরুতর জখম করেছে রোহিঙ্গা বখাটে। সংবাদ পেয়ে টহল টিম ঘটনাস্থলে গিয়ে ঘটনায় ব্যবহৃত দাসহ তাকে আটক করেছে। ধৃত আসামিকে গ্রেফতার করে পরবর্তী আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য উখিয়া থানায় প্রেরণ করা হয়েছে।

 

 

Print Friendly, PDF & Email
ঘটনাপ্রবাহ: ইভটিজিং, উখিয়া, এনজিওকর্মী
Facebook Comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

3 + ten =

আরও পড়ুন