কাজী মুজিবের বক্তব্য বিভ্রান্তিমূলক: বান্দরবান জেলা আ’লীগ

fec-image
বান্দরবানে সন্ত্রাস বিরোধী একটি সমাবেশে জেলা আওয়ামী লীগের বহিষ্কৃত সাধারণ সম্পাদক কাজী মুজিবুর রহমানের বক্তব্যের প্রতিবাদ জানিয়েছেন জেলা আওয়ামী লীগ
বৃহস্পতিবার রাতে জেলা আওয়ামী লীগের পক্ষে প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক সাদেক হোসেন চৌধুরীর স্বাক্ষরিত এক বিজ্ঞপ্তিতে এই প্রতিবাদ জানানো হয়।
এতে বলা হয়- জেলা আওয়ামী লীগ সভাপতি ক্যশৈহ্লাকে জড়িয়ে যে বক্তব্য দেয়া হয়েছে তা মিথ্যা, বিভ্রান্তিমূলক ও অসত্য। এটি জেলা আওয়ামী লীগ সভাপতি ক্যশৈহ্লা কে হেয় প্রতিপন্ন করার সামিল।
প্রতিবাদলিপিতে আরো বলা হয়, দলের নাম ভাঙ্গিয়ে বিভিন্ন অপকর্ম ও বিশৃঙ্খলা সৃষ্টির দায়ে বান্দরবান জেলা আওয়ামী লীগ থেকে বহিষ্কৃত কাজী মুজিব বিভিন্নভাবে জেলা আওয়ামী লীগের ঐক্য বিনষ্টের চেষ্টা চালিয়ে আসছে।
নির্বাচনে নৌকা প্রতীকের বিরুদ্ধাচারণ থেকে শুরু করে নানা অপতৎপরতার কারণে তাকে অনেক আগেই নেতাকর্মীরা প্রত্যাখ্যান করে আস্তাকুঁড়ে নিক্ষেপ করেছে।
দলে কোন ভাবে জায়গা পাওয়ার সমস্ত চেষ্টা ব্যর্থ হয়ে যাওয়ার পর কাজী মুজিব মাঠ ঘোলা করে ফায়দা লুটার জন্য তৎপর হয়ে উঠেছে।
আওয়ামী লীগে থেকে সম্প্রীতি বিনষ্টের যেভাবে অপচেষ্টা করে সংগঠনের ভাবমূর্তি নষ্ট করতে চেয়েছিল এই ব্যক্তি, ঠিক একই চরিত্রে আবির্ভূত হয়ে সরাসরি প্রতিক্রিয়াশীল চক্রের ব্যানার ধরেছে।
বর্তমানে যাদের সাথে নিয়ে মাঠ গরম করার অপচেষ্টা চালাচ্ছে তারা বিভিন্নভাবে বান্দরবানে গণপ্রত্যাখ্যাত।
 শেখ হাসিনার নেতৃত্বে পার্বত্য চট্টগ্রামের বিরাজমান সমস্যা সমাধানের পাশাপাশি পিছিয়ে পড়া জনগোষ্ঠি যেভাবে শিক্ষা দীক্ষায় সামাজিকভাবে এগিয়ে চলেছে সে অগ্রযাত্রাকে বাঁধাগ্রস্ত করার জন্য ষড়যন্ত্রের অংশ হিসেবে এ ধরনের বিভ্রান্তি ছড়ানো হচ্ছে বলে আমরা মনে করি।
ক্যশৈহ্লাকে জড়িয়ে যে বিভ্রান্তিমূলক বক্তব্য দেয়া হয়েছে এর তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ এবং এ ধরনের বক্তব্য প্রদান থেকে আগামীতে বিরত থাকার আহ্বানও জানানো হয়।
অন্যথায় এ ব্যাপারে প্রয়োজনীয় আইনগত উদ্যোগসহ কঠোর কর্মসূচি দেয়া হবে বলেও জানানো হয়।
Print Friendly, PDF & Email
Facebook Comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

15 + sixteen =

আরও পড়ুন