ক্ষুদ্র নৃ-গোষ্ঠীর ভাষায় বঙ্গবন্ধুর ৭ মার্চের ভাষণ অনুবাদ করা হবে: বীর বাহাদুর

fec-image

‘মুজিববর্ষ’ উপলক্ষে পার্বত্য চট্টগ্রামের ক্ষুদ্র নৃ-গোষ্ঠী চাকমা, মারমাত্রিপুরা ভাষায় বঙ্গবন্ধুর ঐতিহাসিক ৭ মার্চের ভাষণ অনুবাদ করা হবে বলে জানিয়েছেন পার্বত্য চট্টগ্রাম বিষয়ক মন্ত্রী বীর বাহাদুর উশৈসিং। ‘মুজিববর্ষ’ উপলক্ষে মঙ্গলবার (২১ জানুয়ারি) মন্ত্রণালয়ের সম্মেলন কক্ষে এক সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে মন্ত্রী এসব কথা বলেন।

বীর বাহাদুর উশৈসিং আরও বলেন, ক্ষুদ্র নৃ-গোষ্ঠীর সাংস্কৃতিক বিকাশ, সংরক্ষণ ও গবেষণার জন্য রাজধানীর বেইলি রোডে ১৯৪ কোটি টাকা ব্যয়ে ‘শেখ হাসিনা পার্বত্য চট্টগ্রাম কমপ্লেক্স’ নির্মিত হয়েছে। পার্বত্যবাসীর উন্নয়নে পার্বত্য চট্টগ্রাম বিষয়ক মন্ত্রণালয় কাজ করে যাচ্ছে।

মন্ত্রণালয়ের এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়, মুজিববর্ষ উপলক্ষ্যে পার্বত্য চট্টগ্রাম বিষয়ক মন্ত্রণালয় বছরব্যাপী কর্মসূচি নিয়েছে। যার মধ্যে রয়েছে – তিন পার্বত্য জেলায় ৫ লাখ গাছের চারা রোপণ, বঙ্গবন্ধু পার্বত্য মেলা আয়োজন। এছাড়া রাঙামাটির বেতবুনিয়া ভূ-উপগ্রহ কেন্দ্রে ৭১ ফুট উঁচু বঙ্গবন্ধু ম্যূরাল উদ্বোধন, বঙ্গবন্ধুর পার্বত্য চট্টগ্রাম সফরকে স্মরণীয় করে রাখতে বঙ্গবন্ধুর ছবি ও সেই সময় উপস্থিত ব্যক্তিদের বক্তব্য নিয়ে স্মরণিকা প্রকাশ এবং স্মার্ট ভিলেজ তৈরি করাসহ বিভিন্ন কর্মসূচি বাস্তবায়ন করা হবে বলেও সভায় জানানো হয়।

জাতীয় কর্মসূচির সঙ্গে সমম্বয় রেখে পার্বত্য চট্টগ্রাম বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের অধীন পার্বত্য চট্টগ্রাম আঞ্চলিক পরিষদ, তিন পার্বত্য জেলা পরিষদ রাঙামাটি, বান্দরবান ও খাগড়াছড়িতে বঙ্গবন্ধুর জীবন ও কর্মের ওপর সেমিনার আয়োজন, সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান, চিত্রাংকন প্রতিযোগিতা, ক্রীড়া প্রতিযোগিতা ও বঙ্গবন্ধুর নামে শিক্ষাবৃত্তি দেওয়া হবে।

মন্ত্রণালয়ের সচিব মো. মেসবাহুল ইসলামের সভাপতিত্বে সভায় বক্তব্য দেন, অতিরিক্ত সচিব সুদত্ত চাকমা, পার্বত্য চট্টগ্রাম উন্নয়ন বোর্ডের ভাইস চেয়ারম্যান মো. মাহিনুল ইসলাম ও তিন পার্বত্য জেলা পরিষদের মুখ্য নির্বাহী কর্মকর্তারা।

সুত্র: বাংলা ট্রিবিউন

Print Friendly, PDF & Email
ঘটনাপ্রবাহ: চাকমা, পাব্যত্য মন্ত্রী, বঙ্গবন্ধুর ভাষণ
Facebook Comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

20 + 7 =

আরও পড়ুন