খাগড়াছড়িতে বিএনপির বিক্ষোভ-সমাবেশে সরকার পতনের এক দফা কর্মসূচির দাবি

fec-image

টান টান উত্তেজনা ও থমথমে পরিস্থিতি এবং পুলিশের কড়া সতর্ক অবস্থার মধ্য দিয়ে খাগড়াছড়িতে বিএনপির বিক্ষোভ-সমাবেশে সরকার পতনের এক দফা কর্মসূচির দাবি জানিয়ে বলেছেন, বহু মার খেয়েছি, শত মামলা খেয়েছি। এখন থেকে প্রতিরোধ শুরু হবে। এক বিন্দুও ছাড় দেওয়া হবে না। রাজপথে হবে আওয়ামীলীগের সন্ত্রাসীদের সাথে ফয়সালা হবে।

এিনপির চেয়ারপার্সন ও সাবেক প্রধানমন্ত্রী বেগম খালেদা জিয়া ও বাংলাদশেরে একমাত্র নোবেল শান্তি পুরস্কার বিজয়ী ড. মুহাম্মদ ইউনূসসহ দেশের সিনিয়র নাগরিকদের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার অম্মানজনক মন্তব্য ও হত্যার হুমকির প্রতিবাদে আয়োজিত বিক্ষোভ সমাবেশে বক্তারা এ কথা বলেন।

খাগড়াছড়ি জেলা বিএনপির সহ-সভাপতি প্রবীন চন্দ্র চাকমার সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সমাবেশে প্রধান অতিথি ছিলেন, কেন্দ্রীয় বিএনপির শ্রম বিষয়ক সম্পাদক এ এম নাজিম উদ্দীন।

খাগড়াছড়ি জেলা যুবদলের সভাপতি মাহবুব আলম আলম সবুজের সঞ্চালনায় আয়োজিত সমাবেশে বিশেষ অতিথি ছিলেন, খাগড়াছড়ি জেলা বিএনপি সাধারণ সম্পাদক এম এন আবছার।

সমাবেশে বক্তব্য রাখেন, খাগড়াছড়ি জেলা বিএনপির যুগ্ম-সম্পাদক মোশাররফ হোসনে, অনমিষে চাকমা রিংকু, সাংগঠনকি সম্পাদক আব্দুর রব রাজা, জেলা মহিলা দলের সভাপতি কুহেলী দেওয়ান, জেলা যুবদলের সম্পাদক ইব্রাহিম খলিল, জেলা স্বেচ্ছাসেবক দলের সভাপতি নজরুল ইসলাম ও জেলা ছাত্র দলরে সাংগঠনকি সম্পাদক একরাম হোসনে রানা।

সমাবেশে বক্তারা বলেন, শেখ হাসিনা যাকে হত্যার হুমকি দিয়েছেন তিনিই ১৯৮৬ সালে শেখ হাসনিার ওপরে হামলার প্রতিবাদে ঢাকায় বিক্ষোভ মিছিলে নেতৃত্ব দিয়েছিলেন। ওয়ান ইলেভেনে হাসিনার মুক্তির জন্য আহবান জানিয়ে বিবৃতি দিয়েছিলেন।

বিএনপির সমাবেশ শেষ পর্যায়ে সাবেক পৌর কাউন্সিলর হেলালের নেতৃত্বে শহরের লাঠি মিছিল বের করলে বিএনপির শতাধিক নেতাকর্মীও লাঠিসোটা নিয়ে আদালত সড়ক এলাকায় অবন্থান নেয়। পরে পুলিশের হস্তক্ষেপে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আসে।

Print Friendly, PDF & Email
ঘটনাপ্রবাহ: খাগড়াছড়ি, প্রধানমন্ত্রী, বিক্ষোভ
Facebook Comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

11 + eleven =

আরও পড়ুন