টেকনাফে ৮ লাখ ইয়াবা ও ৬টি অস্ত্রসহ ৮ মাদক ব্যবসায়ী আটক

fec-image

টেকনাফে র‌্যাব পৃথক অভিযান চালিয়ে ৮ লাখ ১৪ হাজার ৯৭০ পিস ইয়াবা ও ৬টি অস্ত্রসহ তালিকাভুক্ত ৮ জন মাদক কারবারী এবং কতিপয় সন্ত্রাসীকে আটক করা হয়েছে।

র‌্যাব জানায়, ১৩ডিসেম্বর (শুক্রবার) ভোরে র‌্যাব-৭ এর একটি চৌকষ আভিযানিক দল গোপন সংবাদের ভিত্তিতে উপজেলার হ্নীলা ইউপির রঙ্গীখালী এলাকায় অভিযান চালিয়ে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রণালয়ের তালিকাভুক্ত ইয়াবা কারবারী ইয়ার মোহাম্মদের পুত্র নুর হাফেজ, দলিলুর রহমানের পুত্র ছৈয়দ আলম প্রকাশ কালু, ছৈয়দ হোসেনের পুত্র ছৈয়দ নুর, সব্বির আহমদের পুত্র মোহাম্মদ সোহেলকে আটক করা হয়। পরে আটককৃতদের স্বীকারোক্তিতে তল্লাশী চালিয়ে ৮ লাখ ১০ হাজার ইয়াবা, ৬টি অস্ত্র ও ৭০ রাউন্ড গুলি উদ্ধার করা হয়।

র‌্যাব-৭ চট্টগ্রামের অপারেশন অফিসার এএসপি মাশেকুর রহমান এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন। তিনি আরও জানান, দীর্ঘদিন ধরে তাদের কার্যক্রমের উপর নজর রাখার পর শুক্রবার ভোররাতে তাদের এসব অস্ত্র ও ইয়াবাসহ আটক করা হয়। তাদের বিরুদ্ধে পরবর্তী আইনি ব্যবস্থা গ্রহণ শেষে থানায় সোপর্দ করার প্রস্তুতি চলছে বলেও জানান তিনি।

এ দিকে ভোর রাতে নব গঠিত র‌্যাব ১৫ এর একটি টহল দল টেকনাফ উপজেলার সদর ইউনিয়নের হাবিবছড়া গ্রামস্থ মেরিনড্রাইভ সড়কে ইয়াবা ক্রয় বিক্রয়কালে ৪ হাজার ৯৭০ পিস ইয়াবা সহ চার মাদক ব্যবসায়ী আটক করতে সক্ষম হয়। আটককৃতরা হচ্ছে হ্নীলা ইউনিয়নের লেদা এলাকার মকতুল হোছেনের ছেলে কামাল হোসেন (২৯), আক্তার হোসেন (৩২), মো. নুর (২০) ও আবুল হোছেনের ছেলে আব্দুল মালেক (২৬)।

র‌্যাবের সহকারী পরিচালক, পুলিশ সুপার আব্দুল্লাহ মোহাম্মদ শেখ সাদী সংবাদের সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, তাদের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করে টেকনাফ থানায় হস্তান্তর করা হয়েছে।

উল্লেখ্য, টেকনাফ উপজেলার কতিপয় জনপ্রতিনিধি এবং রাজনৈতিক দলের নেতাকর্মীরা বিভিন্ন সুযোগ-সুবিধা নিয়ে এসব চিহ্নিত নুর হাফেজকে শেল্টার প্রদান করে আসছিল। তাকে রিমান্ড নেওয়া হলে মদদ দাতাদের চিহ্নিত করা সহজ হবে বলেও জানিয়েছেন সচতন মহলা।

Print Friendly, PDF & Email
Facebook Comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

5 × four =

আরও পড়ুন