ঈদে গণপরিবহন নয়, বন্ধ থাকবে পণ্যবাহী পরিবহন: নৌ প্রতিমন্ত্রী

fec-image

ঈদের আগে-পরে মোট ৯ দিন গণপরিবহন বন্ধের যে প্রজ্ঞাপন দেয়া হয়েছিলো সেটাকে ভুল বোঝাবুঝি বলেছেন নৌ পরিবহন প্রতিমন্ত্রী খালিদ মাহমুদ চৌধুরী।

তিনি বলেন, বুধবার (১৫ জুলাই) বৈঠকের আগেও আমরা বলেছিলাম ঈদের আগের ৫ দিন এবং পরের ৩ দিন গণপরিবহন বন্ধ থাকবে। সেটা একটা ভুল বুঝাবুঝি ছিল। এখন সিদ্ধান্ত হয়েছে পণ্যবাহী যেকোনো গণপরিবহন বন্ধ থাকবে।

বুধবার দুপুরে নৌ-পরিবহন মন্ত্রণালয়ের সম্মেলনে কক্ষে ঈদুল আজহা উপলক্ষে লঞ্চ, ফেরী, স্টিমার চলাচল ও যাত্রীদের নিরাপত্তা নিশ্চিতকরণের কর্মপন্থা নির্ধারণী এক বৈঠকে প্রতিমন্ত্রী এসব কথা বলেন।

প্রসঙ্গত, বৈঠকের শুরুতে নৌ পরিবহন প্রতিমন্ত্রী জানান, ঈদের আগের ৫ দিন, ঈদের দিন ও পরের ৩ দিন গণপরিবহন বন্ধ থাকবে।

ঈদের আগে ৫ দিন ও পরে ৪ দিন গণপরিবহন বন্ধ রাখার নির্দেশনা দিয়ে মন্ত্রিপরিষদ বিভাগ থেকে সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণালয় ও বিভাগের কাছে চিঠি পাঠানো হয়েছে বলেও জানিয়েছিলেন প্রতিমন্ত্রী।

সভা শেষে সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে খালিদ মাহমুদ চৌধুরী বলেন, আমরা যখন আজকে বৈঠক শুরু করেছিলাম তখনও বলেছিলাম গণপরিবহন ঈদের আগে ও পরে ৯ দিন বন্ধ থাকবে। পরবর্তীতে আমাদের সঙ্গে মন্ত্রী পরিষদ সচিবের কথা হয়েছে, এখানে একটা ভুল বোঝাবুঝি হয়েছে।

এখানে যে সিদ্ধান্ত হয়েছে, সেটা হচ্ছে ঈদের আগে ৫ দিন ও পরে তিনদিন পণ্যবাহী যেকোনো ধরনের যানবাহন বন্ধ থাকবে। কিন্তু আমাদের গণপরিবহন, গণপরিবহনের একটা অংশ যাত্রীবাহী লঞ্চ বা ফেরী চালু থাকবে।

সেক্ষেত্রে ট্রেন বা বাসও কি চলাচল করতে পারে এমন প্রশ্নের জবাবে প্রতিমন্ত্রী বলেন, আমরা এটার সমন্বয় করে নেব। আমি যতটুকু বুঝতে পারছি ট্রেন এবং বাসও চলবে।

জিলহজ মাসের চাঁদ দেখা সাপেক্ষে আগামী ৩১ জুলাই বা ১ আগস্ট দেশে ঈদুল আজহা বা কোরবানির ঈদ উদযাপিত হবে। ঈদে ঘরমুখী মানুষের যাত্রার সুবিধার্থে আগে ও পরে ৯ দিন সড়কে পণ্য পরিবহন বন্ধ থাকবে।

Print Friendly, PDF & Email
ঘটনাপ্রবাহ: গণপরিবহন, নৌ-পরিবহন মন্ত্রণালয়, পণ্যবাহী
Facebook Comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

three × three =

আরও পড়ুন