শুদ্ধাচার পুরস্কার পেলেন খাগড়াছড়ির প্রকৌশলী সবুজ চাকমা

fec-image

চট্টগ্রাম সড়ক জোনে শুদ্ধাচার পুরস্কার পেয়েছেন খাগড়াছড়ি সড়ক ও জনপথ (সওজ) বিভাগের  উপ-বিভাগীয় প্রকৌশলী সবুজ চাকমা।

অনন্য অবদানের জন্য সোমবার (২০ জুন) সড়ক ও জনপথ অধিদপ্তরের চট্টগ্রামের জোনের অতিরিক্ত প্রধান প্রকৌশলী মো. আতাউর রহমান স্বাক্ষরিত এক বিজ্ঞপ্তিতে ২০২০-২১ অর্থবছরে শুদ্ধাচারের জন্য সবুজ চাকমাকে নির্বাচিত করার কথা জানানো হয়।

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, সোনার বাংলা গড়ার প্রত্যয়: জাতীয় শুদ্ধাচার কৌশল, পরিকল্পনার অন্তভুক্ত শুদ্ধাচার চর্চার জন্য শুদ্ধাচার প্রদান নীতিমালা-২০১৭ এর আলোকে শুদ্ধাচারের জন্য সবুজ চাকমাকে নির্বাচিত করা হয়। তিনি এক মাসের মূল বেতনের সমপরিমাণ অর্থ পুরস্কার হিসেবে পাবেন।

শুদ্ধাচার পুরস্কার পাওয়া সবুজ চাকমা জানান, ‌‘অন্তরের গভীর থেকে অনুপ্রেরণা সৃষ্টি করে সেই অনুপ্রেরণা নিয়ে কাজ করে গেলে কোনো একদিন কর্মের ফল পাওয়া যাবে।’

তিনি বলেন, ‘যেকোনো কাজে নিজেকে নিজেই অনুপ্রেরণা দিয়ে কাজ করে যেতাম। সেই কাজের স্বীকৃতি আজ পেয়েছি। ২০২১-২০২২ অর্থবছরে ‘শুদ্ধাচার পুরস্কার’ গ্রহণের জন্য নির্বাচিত হয়েছি। ভবিষ্যতে জনকল্যাণে যেন কাজ করে যেতে পারি এজন্য সকলের মহযোগিতা কামনা করছি।’

সবুজ চাকমা সরকারি কর্মকর্তা হলেও জেলাবাসীর কাছে সমাজকর্মী ও মানবতাকর্মী হিসেবে পরিচিত। তিনি মানুষের বিপদে-আপদে ছুটে যান, সহযোগিতা করেন সাধ্যমত। প্রকৌশলী সবুজ চাকমার প্রধান লক্ষ্য যুব সমাজকে মাদক ও মোবাইল আসক্তি থেকে দূরে রাখা। তার ঐকান্তিক চেষ্টায় অকেজো খাগড়াছড়ি সরকারি উচ্চ বিদ্যালয় মাঠ এখন ফুটবল ও ক্রিকেটসহ ক্রীড়া প্রেমিদের চারণ ক্ষেত্র।

তিনি একজন বন্যপ্রাণী বিষয়ক শৌখিন আলোকচিত্রী হিসেবেও পরিচিত। তিনি বন ও প্রকৃতি বিষয়ক সংগঠন প্লানটেশন ফর নেচার-এর প্রতিষ্ঠাতা। একজন সরকারি কর্মকর্তা হলেও তিনি সুযোগ পেলে মানুষের সেবায় নিজেকে নিয়োজিত করেন।

Print Friendly, PDF & Email
ঘটনাপ্রবাহ: খাগড়াছড়ি, সবুজ চাকমা
Facebook Comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

nineteen + 5 =

আরও পড়ুন