‘শ্রীকৃষ্ণ দুষ্টকে দমন করে সৃষ্টকে পালন করেছিলো’

fec-image

শ্রীকৃষ্ণ দুষ্টকে দমন করে সৃষ্টকে পালন করেছিলো। তেমনি সকল সম্প্রদায়কে এক হয়ে পার্বত্য অঞ্চল থেকে অশুভ শক্তিকে দূর করে শুভ শক্তির আবির্ভাব ঘটাতে হবে। তাই শ্রীকৃষ্ণের আদর্শে সুন্দর সমাজ বিনির্মাণে সর্বস্তরের মানুষকে এগিয়ে আসতে হবে।

শুক্রবার (২৩ আগস্ট) সকালে রাঙ্গামাটি শহরেরশাহ উচ্চ বিদ্যালয় মাঠ প্রাঙ্গণে জেলা জন্মাষ্টমী উদযাপন পরিষদের উদ্যোগে আয়োজিত আলোচনা সভায় বক্তারা এসব কথা বলেন।

এসময় সভায় জন্মাষ্টমী উদযাপন পরিষদের সভাপতি স্মৃতি বিকাশ ত্রিপুরার সভাপতিত্বে সভায় বক্তব্য রাখেন, রাঙ্গামাটি জেলা পরিষদ সদস্য হাজী মুছা মাতব্বর, রাঙ্গামাটি অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মাঈনউদ্দিন চৌধুরী, এনডিসি উত্তম কুমার দাস, জেলা পুজা উদযাপন পরিষদের সভাপতি বাদল চন্দ্র দে, সাধারণ সম্পাদক স্বপন কান্তি প্রমূখ। এর আগে মঙ্গল প্রদীপ প্রজ্বলনের মধ্যে দিয়ে অনুষ্ঠানের উদ্বোধন করেন পুরোহিত কল্যাণ সমিতির সভাপতি নির্মল চক্রবর্তী।

সভায় বক্তারা বলেন, শ্রী কৃঞ্চের জন্মষ্টমী শুধুমাত্র আবির্ভাবের মধ্যে সীমাবদ্ধ না রেখে সকলকে কৃষ্ণের দর্শন উপলব্ধি করতে হবে। সকলকে অসাম্প্রদায়িক মনোভাব নিয়ে চলতে হবে। বক্তারা আরো বলেন, ধর্মের উদ্দেশ্য হলো মানুষের উপকার করা, মানুষের মঙ্গল কামনা করা। মানুষ যাতে সুন্দর ভাবে জীবন যাপন করতে পারে, সুন্দরভাবে বেঁচে থাকতে পারে, নিরাপদে নির্বিঘ্নে যার যার ধর্ম পালন করতে পারে এটাইতো আমাদের ধর্ম।

আলোচনা সভা শেষে শহরের তবলছড়ি শাহ বহুমুখী উচ্চ বিদ্যালয় থেকে এক বর্ণাঢ্য শোভাযাত্রা বের হয়। শোভাযাত্রাটি শহরের গুরুত্বপূর্ণ সড়ক প্রদক্ষিণ করে জেলা প্রশাসনের কার্যালয়ের সামনে গিয়ে শেষ হয়। এতে শত শত সনাতন ধর্মাবলম্বী নারী পুরুষ বিভিন্ন রুপে সেজে শোভাযাত্রা অংশগ্রহণ করেন।

Print Friendly, PDF & Email
Facebook Comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

eight − one =

আরও পড়ুন