সাগরে ভেসে যাওয়া ছাত্রের লাশ মিলল সোনাদিয়ার চরে

fec-image

কক্সবাজার সমুদ্র সৈকতে গোসলে করতে নেমে নিখোঁজ ফটিকছড়ির মাদ্রাসা শিক্ষার্থী মোহাম্মদ মাহফুজ (১৮) এর লাশ উদ্ধার করা হয়েছে।

বৃহষ্পতিবার (২০ আগস্ট) সকালে মহেশখালীর সোনাদিয়ার মগচর পয়েন্টে লাশটি পাওয়া যায়।

জানা যায়- সোনাদিয়ার বোটের পাহারাদার জাকির হোসেন নামের জনৈক বোট পাহারাদার বোট পাহারা শেষে বাড়ি চলে যাওয়ার সময় সোনাদিয়ার মগচর পয়েন্ট চরে তিনি লাশটি দেখতে পান। তার পরনে একটি সবুজ গেঞ্জি ও একটি সাদা হাফ-পেন্ট রয়েছে। গায়ের রং শ্যামলা।

তবে, চিৎ হয়ে থাকায় লাশের চেহারা দেখা না যাওয়ায় বয়স অনুমান করতে পারেন নি তিনি। পরে স্থানীয়রা মহেশখালী থানা পুলিশকে খবর দিলে মাহফুজের লাশ হিসেবে চিহ্নিত করে।

এদিকে স্থানীয় ইউপি সদস্য মোহাম্মদ সিহাব উদ্দিন সোয়াইব নিশ্চিত করে বলেন, মাহফুজের ভাই ও তার স্বজনরা মহেশখালী গেছেন।

উল্লেখ্য মাহফুজ ফটিকছড়ি উপজেলার ধর্মপুর ইউনিয়নের কানি মিয়াজি বাড়ীর নতুন বাড়ী (টিলার পাড়/ছড়ার টিলা) এলাকার দুবাই প্রবাসী মাহবুবুল আলমের ছেলে। সে স্থানীয় একটি মাদ্রাসার ৮ম শ্রেণীর ছাত্র।

মাহফুজ মঙ্গলবার সকালে চট্টগ্রামের ফটিকছড়ি থেকে মামাতো ভাই ও বন্ধুদের সাথে ২৪ জনের একটি দল কক্সবাজার বেড়াতে আসে। পরে বিকালে তারা সমুদ্র সৈকতে ঘুরতে বের হয়।

বিকাল সাড়ে ৪ টার সময় বন্ধুরা মিলে সাগরে গোসলে নামে। এক পর্যায়ে ঢেউয়ের টানে মোহাম্মদ মাহফুজ সাগরে তলিয়ে যায়।

সাথে সাথে অন্যরা এগিয়ে মাহফুজকে উদ্ধার করতে যাওয়া বন্ধুকে উদ্ধার করতে পারলেও নিখোঁজ হয় যায় মাহফুজ।

বন্ধুরা তাকে কিছুক্ষণ খোঁজাখুঁজি করে না পেয়ে স্থানীয় লাইফ গার্ড ও ট্যুরিস্ট পুলিশকে বিষয়টি অবহিত করে।

পরে সাগরে পর্যটকদের নিরাপত্তায় নিয়োজিত থাকা বীচকর্মীরা খোঁজেও মাহফুজের সন্ধান পাননি।

অবশেষে নিখোঁজের তিনদিন পর বৃহষ্পতিবার সকালে সোনাদিয়ার বোটের পাহারাদার জাকির হোসেন মগচর পয়েন্টে লাশটি দেখতে পান।

পরে স্থানীয়রা মহেশখালী থানা পুলিশকে খবর দিলে স্বাজনদের সাথে যোগাযোগ করে মাহফুজের লাশ শনাক্ত করে।

Print Friendly, PDF & Email
ঘটনাপ্রবাহ: মহেশখালী, লাইফ গার্ড, সোনাদিয়া চর
Facebook Comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

17 − 16 =

আরও পড়ুন